মেইন ম্যেনু

আমি নির্দোষ : জাকির নায়েক

‘আমি গত ২৫ বছর ধরে বক্তৃতা দিয়ে আসছি, কিন্তু কখনো সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহিত করিনি’। শুক্রবার সৌদি আরবের মদিনায় স্কাইপির মাধ্যমে করা এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন ভারতের বিতর্কিত ইসলামি চিন্তাবিদ, বক্তা ও লেখক জাকির নায়েক। এর আগে বৃহস্পতিবার স্কাইপির মাধ্যমে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার তথ্য জানানো হলেও শেষ পর্যন্ত তা বাতিল করা হয়।

গত ১ জুলাই ঢাকার গুলশানের আর্টিসান রেস্তোরাঁয় হামলাকারী পাঁচ জঙ্গির মধ্যে রোহান ইমতিয়াজ ও নিবরাস ইসলাম গত বছর ভারতের এই বক্তার কথা উদ্ধৃত করে ফেসবুকে পোস্ট করে। এরপরই সৌদি আরবের মদিনা সফরে থাকা জাকির নায়েক বিরুদ্ধে জঙ্গি তৎপরতায় ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

মদিনা থেকে স্কাইপির মাধ্যমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জাকির নায়েক বলেন, ‘আমার বক্তব্য প্রসঙ্গের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এবং বিকৃত করা হয়েছে’। বৃহস্পতিবার রাতে ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চলীয় নিস শহরে জাতীয় দিবস উদযাপনের সময় ট্রাক হামলার ঘটনার নিন্দা জানিয়ে জাকির নায়েক সংবাদ সম্মেলন শুরু করেন।

ভারতের প্রভাবশালী দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসলামি এই বক্তা বর্তমানে ভারতের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারিতে রয়েছেন। পেশায় চিকিৎসক জাকির নায়েক সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহিত করার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি একটি পেনড্রাইভ দেবো, যেখানে আমার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগের জবাব রয়েছে। নিরপেক্ষ মন নিয়ে একটু তাকান, আপনি দেখতে পাবেন আমি নির্দোষ’।

তিনি বলেন, ইসলামে আত্মঘাতী বোমা হামলার অনুমতি নেই, যার মাধ্যমে নিষ্পাপ মানুষের প্রাণহানি ঘটছে। এটি (বোমা হামলা) সঠিক নয়।

জাকির নায়েকের এই সংবাদ সম্মেলন স্কাইপির মাধ্যমে ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন পরিচালিত পিস টিভিতে সম্প্রচার করা হয়েছে। বাংলাদেশে পিস টিভির জনপ্রিয়তা থাকলেও গুলশান হামলার পর তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই