মেইন ম্যেনু

‘আমি ভারতীয়, আমার আর কোনও ধর্ম নেই’

ইদানিং কালে বলিউডে তাঁর উপস্থিতি অনিয়মিত। তবে অন স্ক্রিন হোন বা অফ স্ক্রিন, তিনি আলাদাই। তিনি নানা পটেকর। ফিল্মি স্ক্রিপ্টের বাইরেও নিজের চাঁচাছোলা, সোজা সাপটা মন্তব্যের জন্য তাঁর একটা আলাদা পরিচিতি রয়েছে বলিউডে। ফের ভাবসিদ্ধ ভূমিকায় ধরা দিলেন নানা পটেকর। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের একটি স্কুলের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে নানা পটেকর বলেন, “সংবিধান থেকে জাত এবং ধর্মের অনুচ্ছেদটাই তুলে দেওয়া উচিত।” তাঁর সাফ কথা,

“আমি ধর্মে বিশ্বাস করি না। আমরা ভারতীয়, এটাই আমাদের একমাত্র পরিচয় একমাত্র ধর্ম হওয়া উচিৎ হিন্দু, মুসলমান বা খ্রিস্টান নয়।” অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে তাঁর সোজা সাপটা প্রশ্ন, “জন্মের সময় কি আমাদের কোনও জাত বা ধর্ম ছিল ?” এর সঙ্গে তিনি যোগ করেন, “আমাদের দেশ যখন ধর্মনিরপে¶, তখন সংবিধানে জাত এবং ধর্মের আলাদা অনুচ্ছেদ থাকার কী প্রয়োজন ? এগুলো তুলে দেওয়া উচিত।”

এই অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, “সকল ধর্মেই মানুষের মধ্যে ঈশ্বর সন্ধানের কথা বলা আছে। আমাদের কর্মই আমাদের ঈশ্বর। আপনি নিজে যদি মানবিক হন, তবেই জীবনে শান্তি পাবেন।”

দেশ জুড়ে ইদানীং অসহিষ্ণুতা নিয়ে তুমুল বিতর্কের ঝড় বয়ে চলেছে। এই বিতর্কে একের পর এক নাম জড়িয়েছে একাধিক বলিউড সুপারস্টারের। এই পরিস্থিতিতে নানা পটেকরের এই মন্তব্য এ বিষয়ে একটা অন্যমাত্রা এনে দিল।






মন্তব্য চালু নেই