মেইন ম্যেনু

চিড়িয়াখানায় বানরের সাথে মানুষ !

১৯০৪ সালের কথা। ওটা বেঙ্গা নামের এক ব্যক্তি কঙ্গো থেকে অপহৃত হন। অপহরণকারীরা তাকে নিয়ে আসেন আমেরিকায়। সেখানে চিড়িয়াখানায় বানরদের সঙ্গে প্রদর্শনীর জন্য তাকে খাঁচায় পোরা হয়! কৃষ্ণবর্ণের বেঙ্গার জীবনের এই হতাশার গল্প প্রকাশ করেছে দ্যা গার্ডিয়ান, পত্রিকাটি বলছে, এটা জাতিগত কুসংস্কারের ফল, যা আজও আমাদের দংশন করছে।

১৯০৬ সালের ৯ সেপ্টেম্বর বেঙ্গাকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস। এদিন পত্রিকাটি শিরোনাম করে, ‘ব্রঙ্কস পার্কের অরণ্যবাসীর সঙ্গে বনমানুষ।’ পরদিন সকালে সারা দেশে হৈ-চৈ পড়ে যায়।

খবরে বলা হয়, ওটা বেঙ্গাকে চিড়িয়াখানায় দেখতে প্রতিদিন কমপক্ষে ৫০০ মানুষ ভিড় করছে। বেঙ্গার শারীরিক বর্ণনায় বলা হয়, সে মাত্র ৫ ফিট লম্বা, ওজন ১০৩ ফাউন্ড।

সেপ্টেম্বরের প্রত্যেক বিকেলে শিশু থেকে বুড়রা বেঙ্গাকে দেখতে দল বেঁধে টিকেট কেটে চিড়িয়াখানায় আসছিল বলেও প্রতিবেদনে জানানো হয়।

চিড়িয়াখানায় মানুষ থাকার ওই খবরে তৎকালীন সময়ে বেশ বিপাকে পড়ে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। তারা ওই সময় নিজেদের ভুল স্বীকার করে ক্ষমাও চান।






মন্তব্য চালু নেই