মেইন ম্যেনু

আরও এক মামলায় খালেদার নামে চার্জশিট

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাশকতার আরও একটি মামলায় চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ।

গত বুধবার রাতে দারুস সালাম থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের ওই মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা ওই থানার এসআই আব্দুর রাজ্জাক ওই চার্জশিট দাখিল করেন। এ নিয়ে খালেদা জিয়া বিরুদ্ধে নাশকতার ৬টি মামলায় আদালতে চার্জশিট দাখিল হলো। চার্জশিট দাখিলকৃত মামলায় খালেদা জিয়াসহ ২৬ জনকে চার্জশিটে আসামি করা হয়েছে।

দারুস সালাম থানার ৬ (২)১৫ নম্বরের এই মামলায় চার্জশিটের ২৬ জন আসামির মধ্যে খালেদা জিয়াসহ ২৫ জনকেই পলাতক দেখিয়ে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছে।

ঢাকার সিএমএম আদালতের বিচারক এমদাদুল হক আগামী ১৩ জুন চার্জশিট গ্রহণের বিষয়ে শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া মামলার অন্য উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমান, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, খালেদা জিয়ার প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান, বিএনপি নেত্রী সৈয়দা আশিফা আশরাফী পাপিয়া, বিএনপি নেতা সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মিয়া সরাফত আলী সফু, মামুন হাসা, হাজি আবদুর রহমান, মোন্তফা জগলুল প্রমুখ। আসামিদের মধ্যে শুধু আমানউল্লাহ আমান জামিনে আছেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৬ জানুয়ারির নির্বেচনকে কেন্দ্র করে হরতাল-অবরোধ চলাকালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হুকুমে দারুসসালাম এলাকাধীন এলাকায় জ্বালাও-পোড়াও ও গাড়ি ভাঙচুর করে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা। এ ঘটনায় একই বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি ওই থানার এসআই টিটু সরদার বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা করেন।

উল্লেখ্য, গত ১১ মে রাজধানীর দারুস সালাম থানার দণ্ডবিধি ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের ওই দুই মামলায় খালেদা জিয়াসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল হয়।

তার আগে পেট্রোল বোমায় মানুষ পুড়িয়ে হত্যা ও দগ্ধ হওয়ায় যাত্রাবাড়ী থানার একটি মামলায় ২০১৫ সালের ৬ মে খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে দণ্ডবিধি (হত্যা) এবং বিস্ফোরক আইনে ২টি মামলায় চার্জশিট দাখিল করা হয়।

ওই একই বছরের ১৯ মার্চ বিশেষ ক্ষমতা আইনে অরেকটি চার্জশিট দাখিল করেন ডিবি পুলিশের এসআই বশির আহমেদ। গত ৫ এপ্রিল মামলাগুলোয় খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হয়ে জামিন গ্রহণ করেন।






মন্তব্য চালু নেই