মেইন ম্যেনু

আর্জেন্টিনার জয়ে ফেরার পথে উরুগুয়ে বাধা

২২ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর লক্ষ্যে এবারের কোপা আমেরিকার মিশনে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি আর্জেন্টিনার। গত শনিবার গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে দুই গোলে এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলে ড্র লিওনেল মেসির দল। বুধবার ভোরে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা।

জয়ে ফিরতে আর্জেন্টিনার সামনে বাধা এবার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে। চিলির লা সেরেনায় বুধবার বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে পাঁচটায় শুরু হবে ম্যাচটি। সরাসরি দেখাবে সনি কিক্স ও সনি সিক্স এএইচডি চ্যানেল।

আর্জেন্টিনা তাদের প্রথম ম্যাচ ড্র করলেও উরুগুয়ে জয় দিয়েই কোপার মিশন শুরু করে। তবে বেশ কষ্টার্জিত জয় পায় উরুগুইয়ানরা। জ্যামাইকার বিপক্ষে সে ম্যাচে একমাত্র গোলে জেতে তারা।

আগামীকাল উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে তাই জয়ে ফেরার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরো।

ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে রোমেরো বলেন, ‘আশা করি আগামীকাল (বুধবার) আমাদের সেরা খেলাটা খেলতে পারব। প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধে আমরা যেভাবে খেলেছিলাম উরুগুয়ের বিপক্ষে সেভাবে খেলতে পারলে ফল আমাদের পক্ষেই আসবে।’

যদিও উরুগুয়েকে নিয়ে বেশ সতর্ক রোমেরো। উরুগুয়ের দুই স্ট্রাইকার ক্রিস্টিয়ান রদ্রিগেজ ও এডিনসন কাভানিকে ভয়ঙ্কর আখ্যা দিয়ে আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক বলেন, ‘ক্রিস্টিয়ান রদ্রিগেজ ও এডিনসন কাভানির মতো ওদের ভয়ঙ্কর দুজন স্ট্রাইকার রয়েছে।’

এ মৌসুমে বার্সেলোনার হয়ে ট্রেবল জেতা মেসি জাতীয় দলের জার্সিতেও সমান উজ্জ্বল। প্যারাগুয়ের বিপক্ষে দারুণ খেলেছেন চারবারের ফিফা বর্ষসেরা এই খেলোয়াড়। পেনাল্টি থেকে চমৎকার একটি গোলও করেছিলেন মেসি। আরেক স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরো করেছিলেন অপর গোলটি। উরুগুয়ের বিপক্ষেও জ্বলে উঠতে পারেন মেসি-আগুয়েরো জুটি।

শতবর্ষী টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকায় সবচেয়ে সফল দুটি দল কিন্তু এই আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে। লাতিন আমেরিকার বিশ্বকাপ নামে পরিচিত এই টুর্নামেন্টে উরুগুয়ে সর্বোচ্চ ১৫বার শিরোপা জিতেছে। ১৪টি শিরোপা নিয়ে উরুগুয়ের পরেই রয়েছে আর্জেন্টিনা।

চিলির মাটিতে অনুষ্ঠিত হওয়া ম্যাচে এ পর্যন্ত পাঁচবার দেখা হয়েছে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের। যার সবশেষ তিনটি ম্যাচেই জেতে আর্জেন্টিনা। একটি মাত্র ম্যাচে উরুগুয়ে জেতে এবং অপরটি ড্র হয়। তবে কোপা আমেরিকায় দুই দলের শেষ ম্যাচে উরুগুয়ের কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। ২০১১ সালে কোয়ার্টার ফাইনালের সে ম্যাচে উরুগুয়ের কাছে টাইব্রেকারে হেরেছিলেন মেসি-তেভেজরা।

সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলে দুই দলের শেষ পাঁচ দেখায় তিনটি ম্যাচেই জিতেছে আর্জেন্টিনা। একটি ম্যাচ উরুগুয়ে জিতেছে এবং একটি ড্র হয়েছে। দুই দলের শেষ দেখায় জয়টি পায় উরুগুয়ে। ২০১৩ সালে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সে ম্যাচে ৩-২ গোলে জিতেছিল উরুগুইয়ানরা। আগামীকাল কোপার লড়াইয়ে আর্জেন্টিনার জয়ে ফেরার সঙ্গে রয়েছে প্রতিশোধেরও সুযোগ।






মন্তব্য চালু নেই