মেইন ম্যেনু

আলীকে সম্মান জানিয়ে তোপের মুখে ট্রাম্প

সদ্যপ্রয়াত মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে তোপের মুখে পড়েছেন রিপাবলিকান মনোনয়নপ্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাকে একহাত নিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেটিক দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী বার্নি স্যান্ডার্স। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ‘কপটতা’র অভিযোগ এনেছেন স্যান্ডার্স।

এবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ডেমোক্রেট রাজনীতিবিদ স্যান্ডার্স বলেন, ট্রাম্প দেশে মুসলিম বিদ্বেষ প্রচার করছেন, একই সঙ্গে সম্মান জানাচ্ছেন আলীকে।

মুসলমানদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির কথা ঘোষণা করে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন ট্রাম্প। আলীর মৃত্যুর পর ট্রাম্পের টুইট বার্তাও সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে।

ট্রাম্প তার টুইটারে লেখেন, ‘৭৪ বছর বয়সে মারা গেলেন মোহাম্মদ আলী। তিনি ছিলেন একজন প্রকৃত বিজয়ী ও একজন চমৎকার মানুষ। সবাই তার অভাব বোধ করবে।’

ট্রাম্পের উদ্দেশে স্যান্ডার্স বলেন, ‘মোহাম্মদ আলীকে কত ভালোবাসেন সে কথা আর বলবেন না। আপনিই মুসলমানদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব তুলেছেন।’

ট্রাম্পের টুইটের প্রতিক্রিয়ায় আরেকজন লিখেছেন, ‘আপনার প্রস্তাব বাস্তবায়িত হলে আলীও হয়তো যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারতেন না।’

আগে ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্ক থাকলেও গত বছর এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতি প্রকাশ করে আলী বলেছিলেন, ‘যারা নিজেদের স্বার্থে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে চাইছে, মুসলিম হিসেবে তাদের বিরুদ্ধে আমাদের উঠে






মন্তব্য চালু নেই