মেইন ম্যেনু

আ’লীগ-বিএনপি ব্যার্থ দল : এরশাদ

দেশের দুই বৃহৎ দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি ব্যার্থ দল বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষদূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এই সুযোগে পার্টির সকল নেতাকর্মীকে ঘুরে দাঁড়ানোর আহবান জনিয়েছেন তিনি।

শনিবার বনানীতে দলটির কার্যালয়ের মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির সকল জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব মন্তব্য করেন।

এরশাদ বলেন, আগামী নির্বাচনকে জাতীয় পার্টি একটি বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করবে। যেভাবে ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে, আগামীতে সেভাবে আর কোনো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে দেশবাসী নির্বাচনী ব্যবস্থার উপর আর কোনো আস্থা রাখতে পারবে না।

আমার ভোট আমি দেবো- এই অধিকার নিশ্চিত না হলে গণতন্ত্র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করবে না। তাই মানুষের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। বর্তমানের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে নির্বাচন কমিশনকে পরবর্তীতে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

এরশাদ বলেন, আগামী ১৪ মে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় পার্টির জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পার্টিকে ঘুরে দাঁড়াতে হবে। কারণ, দেশের মানুষ এখন জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে।

তিনি বলেন, গত ২৫ বছরে দুটি দলের ব্যর্থ শাসনে দেশের মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। তাদের জনপ্রিয়তা এখন তলানীতে। এই সুযোগ জাতীয় পার্টিকেই গ্রহণ করতে হবে। তিনি আসন্ন জাতীয় পার্টির জাতীয় সম্মেলন সফল করার জন্য পার্টির সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী জিএম কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ আবুল কাশেম, এসএম আব্দুল মান্নান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, সুনীল শুভ রায়, এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, আতিকুর রহমান আতিক, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা অধ্যাপক আনম শাহজাহান, রিন্টু আনোয়ার, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার মিয়া, মুজিবুর রহমান সেন্টু, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, যুগ্ম-মহাসচিব আলমগীর শিকদার লোটন, শফিকুল ইসলাম মধু, হোসেইন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ, নুরুল ইসলাম নুরু, সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী, কাজী আশরাফ সিদ্দিকী, ড. হারুন অর রশীদ, শওকত চৌধুরী এমপি, মোঃ নোমান এমপি, দপ্তর সম্পাদক সুলতান মাহমুদ, কেন্দ্রীয় নেতা বেলাল হোসেন, ফখরুল ইসলাম ভূঁইয়া লিটন, জসীম উদ্দিন ভূঁইয়া, অ্যাডভোকেট খন্দকার হাবিবুর রহমান বাচ্চু, খান মোঃ ইসরাফিল খোকন, নিজাম উদ্দিন সরকার, সুমন আশরাফ, আব্দুস সাত্তার গালিব, আব্দুর রাজ্জাক, গোলাম মোস্তফা, যুব বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ঝন্টু, পাবনা জেলা সভাপতি মকবুল হোসেন সেন্টু, চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুসসাফা সরকার প্রমুখ বক্তৃতা করেন।






মন্তব্য চালু নেই