মেইন ম্যেনু

আশরাফুল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও স্পট ফিক্সিং করেছেন!

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএলে) স্পট-ফিক্সিংয়ের অভিযোগে পাঁচ বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল। যার সাজা তিনি এখন ভোগ করছেন।তবে তাঁর পাঁচ বছরের শাস্তি কমিয়ে তিন বছরে আনা হয়, যা শেষ হবে ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট।

এতদিন জানা গিয়ে ছিলো বিপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত ছিলেন আশরাফুল। এবার জানা গেল, কেবল বিপিএলই নয়, এর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও স্পট ফিক্সিং করেছেন।মঙ্গলবার ক্রীড়া বিষয়ে বৈশ্বিক দুর্নীতি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। প্রতিবেদনে এই সংস্থাটি জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলের ম্যাচ ফিক্সিংয়ের তিনটি নজির প্রকাশ করেছে।

২০১০ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত একটি টেস্ট ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ে ভূমিকা রাখার জন্য তিনি (মোহাম্মদ আশরাফুল) বাজিকরের কাছ থেকে ৭ লক্ষ টাকা (প্রায় ১০ হাজার মার্কিন ডলার নিয়েছিলেন, যদিও দ্রুত আউট হয়ে যাওয়ায় সে যাত্রায় তিনি কথা রাখতে পারেননি। তিনি স্বীকার করেছিলেন যে, এই প্রতিশ্রুতিতে পরবর্তীতে ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের একটি ম্যাচে স্থানান্তর করা হয়েছিল।

তাছাড়া ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত শ্রীলঙ্কা প্রিমিয়ার লিগের (এসএলপিএল) আরেকটি ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ের বিনিময়ে আরও ১০ হাজার মার্কিন ডলার আয় করার কথাও আশরাফুল স্বীকার করেছিলেন। টিআইবি নিজেদের প্রতিবেদনে লিখেছে, ২৫ লক্ষ টাকার (প্রায় ৩০ হাজার মার্কিন ডলার) বিনিময়ে ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আরেকটি ম্যাচেও স্পট ফিক্সিংয়ে তার (মোহাম্মদ আশরাফুল) ভূমিকা রাখার কথা শোনা যায়।উল্লেখ্য,এই সব ক্ষেত্রেই আশরাফুল নিজে এই দায় স্বীকার করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই