মেইন ম্যেনু

আশা ছাড়েননি কনক চাঁপা!

২০১১ সালে আওয়ামী লীগে যোগ দিলেও এমপি পদে মনোনয়ন পাননি সংগীতশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনক চাঁপা। পরে অনেকটা ক্ষোভ থেকে তিনি ২০১৩ সালের ১৬ আগস্ট বিএনপিতে যোগ দেন।

আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপিতে আসার পর কিছুদিন তাকে খালেদা জিয়ার কয়েকটি অনুষ্ঠানের মঞ্চে দেখা গেছে। কিন্তু এখন বিএনপির কোথাও তার দেখা মেলে না।

কেউ কেউ বলছেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসবে, মনোনয়ন নিয়ে এমপি হবেন, এমন ভাবনায় দশম সংসদ নির্বাচনের আগে অনেকেই এই দলে যোগ দিয়েছিলেন। কনকচাঁপার বিষয়টি এমনই।

তবে শুধু তিনিই নন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে সাংস্কৃতিক অঙ্গনের আরো অনেককে বিএনপি-প্রধান খালেদা জিয়ার আশপাশে দেখা গেছে।

কেউ আনুষ্ঠানিকভাবে, কেউ বা অঘোষিতভাবে বিএনপির হয়ে কাজ শুরু করেন। কিন্তু সময়ের তালে তালে তাদের অনেকে হারিয়ে গেছেন। ভুলেও বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয় অথবা নয়াপল্টন কার্যালয়ের দিকে তারা পা বাড়ান না। কনকচাঁপাও এদের দলে।

জনগণের পাশে থাকার প্রত্যাশা নিয়ে রাজনীতিতে আসা এই সঙ্গীতশিল্পীর রাজনীতিতে মন নেই। দেশ-বিদেশে কনসার্ট আর টিভি অনুষ্ঠানে নিয়ে তিনি ব্যস্ত সময় পার করছেন।

বিএনপিতে যোগ দেয়ার সময় কনকচাঁপার বক্তব্য ছিল, “দেশ ও মানুষের জন্য বড় পরিসরে কিছু করতে চাইলে বড় প্ল্যাটফর্ম দরকার। একটা রাজনৈতিক ছাতা দরকার। সেই ভাবনা থেকেই বিএনপিতে যোগদান করা।”

তবে সমালোচকরা বলছেন, সাংস্কৃতিক অঙ্গনের এসব মানুষের ধারণা ছিল খুব শিগগির বিএনপি ক্ষমতায় আসবে। এর মাধ্যমে নিজেদের অবস্থান শক্তিশালী করবেন তারা। কিন্তু সে আশায় গুঁড়েবালি দেখে সরে গেছেন।

বিএনপি ক্ষমতায় গেলে এমপি হওয়ার ইচ্ছা থেকে বিএনপিতে আসা কি না এমন প্রশ্নে ওই সময় কনকচাঁপার উত্তর ছিল, “এমপি ইলেকশন না করেও সেই কাজটা করা যায়। আমি আসলে এ মুহূর্তে সবার কাছে দোয়া চাই। আর কিছু চাই না।”

ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল শেষ করে দল পুনর্গঠন করছে বিএনপি। নতুন কমিটিতে পদ পেতে নানা মহলে তৎপরতা চালাচ্ছেন পদপ্রত্যাশীরা। বসে নেই বিএনপিমনা সাংস্কৃতিক কর্মীরাও। তারাও যে যার মতো লবিং করছেন পছন্দের পদ বাগিয়ে নিতে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ ক্ষেত্রে কিছুটা চুপচাপ রয়েছেন কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপা। এ ক্ষেত্রে একটি বিষয় কাজ করছে। তিনি বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্যের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। তার সহায়তাতেই কনকচাঁপার বিএনপিতে আসা।

কনকচাঁপার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব না হলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ আছে এমন একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “বিএনপির নির্বাহী কমিটির পদ পাওয়ার প্রত্যাশা করছেন কনকচাঁপা। সে অনুযায়ী চেষ্টাও করছেন। তবে অন্যদের মতো না।” ঢাকাটাইমস






মন্তব্য চালু নেই