মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় ঠিকাদারের হাতে নির্মান শ্রমিক নিহত

টিপু সুলতান (রবিন), সাভার প্রতিনিধি : সাভারের আশুলিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় কাউছার নামে এক টাইলস মিস্ত্রির সহকারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত রবিউল ইসলাম নামের এক টাইলস ঠিকাদারকে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

শনিবার সকালে আশুলিয়ার পাথালিয়া ইউনিয়নের আমবাগান এলাকা থেকে কাউছারের মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, আটককৃত টাইলস ঠিকাদার রবিউল ইসলামের সাথে টাইলসের কাজের সহকারী হিসেবে কাজ করতেন কাউছার। দীর্ঘ দিন ধরে রবিউল তার সহকারী কাউছারকে কাজের পাওনা না দেওয়ায় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডতা চলে আসছিল।

নিহত কাউসারের মামা খোকন জানায় গতকাল কাউছার(১৭) তার যাবতীয় বকেয়া পাওনা পরিশোধের জন্য রবিউল চাপ দেয়। তখন ঘাতক রবিউল টাকা দিতে অস্বিকৃতি জানায়,এর মধ্য ঠিকাদার রবিউলের টাইরসের মেশিন অন্য টাইলস মিস্ত্রিরা নিয়েগেলে ঠিকাদার রবিউল ক্ষিপ্ত হয়ে কাউসারের বাসায়গিয়ে ঘমন্ত অবস্থায় থাকা কাউসার ও তার আরও দুই সহযোগীকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে। এদের মধ্য কাউসারকে আশঙ্কাজন অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।তিনি আরও জানায় কাউসার নবম শ্রেনীর ছাত্র ছিল, সে পড়াশুনার পাশে,পাশে,টাইলসের কাজ করত।

নিহত কাউসার(১৭)বরিশাল জেলার,গৌরনদী গ্রামের পিমলাঘাটি গ্রামের সরবআলী মাদবরের ছেলে।

এদিকে, খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এবং অভিযুক্ত টাইলস মিস্ত্রি রবিউল ইসলামকেও আটক করে।






মন্তব্য চালু নেই