মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে এক দম্পতির আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক : সাভারের আশুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষ পান ও গলায় ফাঁস দিয়ে রানা মিয়া(২৮)ও শিখা আক্তার(২০)নামে এক দম্পত্তি আত্মহত্যা করেছে।

পুলিশ নিহতের মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেছে। তবে পুলিশের ধারনা স্বামী রানা মিয়া স্ত্রী শিখা আক্তারকে হত্যার পর সে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে সাভারের আশুলিয়ার শ্রীপুর এজিজ গেট এলাকায় হাজী মোশারফ হোসেনের ভাড়া বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাকিবুল ইসলাম আওয়ার নিউজকে জানায়, দীর্ঘ দিন ধরে ওই দম্পত্তির মধ্যে পরিবারিক বিষয় নিয়ে কলহ চলে আসছিল। পরবর্তীতে আজ দুপুরে তাদের মধ্যে চলমান কলহের ধারাবাহিকতায় বাকবিতন্ডতা হয়। এক পর্যায়ে স্ত্রী শিখা আক্তার বিষ পান করে আত্মহত্যা করেন। এসময় স্বামী রানা মিয়া নিজেও গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্থানীয়দের কাছ থেকে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে মরদেহ দুটি ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। পুলিশের প্রাথমিক ধারনা শিখা আক্তারের স্বামী রানা মিয়া তাকে হত্যার পর নিজে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর আসল ঘটনা জানা যাবে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।শিখা আক্তার ডিইপিজেড এর হোপলেন নামক একটি পোশাক কারখার পোশাক শ্রমিক ছিলেন।

মৃত রানা ও শিখা আক্তারের বাড়ি মেহেরপুর জেলার,গাংনী থানার,সিন্দুর কোট গ্রামে বলে জানা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই