মেইন ম্যেনু

ইংরেজি শিখছেন মেসি, কিন্তু কেন?

প্রায় চল্লিশটিরও বেশী ভাষা রয়েছে আর্জেন্টিনায়। তবে সেখানে স্প্যানিশ ভাষারই বেশি আধিপত্য। মেক্সিকো, স্পেন ও কলম্বিয়ার পর আজেন্টিনার অবস্থান, স্প্যানিশ ভাষা প্রয়োগের ক্ষেত্রে। বিশ্বসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসির জন্ম আর্জেন্টিনায়, তবে বেড়ে ওঠা স্পেনে। ফলে স্প্যানিশ ভাষাটা ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে বার্সেলোনার এই সুপারস্টারের সঙ্গে। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে মেসির সুপরিচিত থাকলেও, ইংরেজি ভাষায় খুব একটা পারদর্শী নন তিনি। তবে এখন তিনি শিখতে শুরু করেছেন ইংরেজি।

কিন্তু কেন, এতদিন পর ইংরেজি ভাষা শেখারই প্রয়োজন পড়ল কেন মেসির? প্রশ্নটা উঠতে পারে। মেসির এই ইংরেজি শিক্ষার পেছনে নাকি রয়েছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ। বার্সেলোনা ছেড়ে ইংল্যান্ডের কোন ক্লাবে পাড়ি জমাতে পারেন তিনি। এমন শংকার কথাই জানিয়েছেন স্প্যানিশ ফুটবল বিশেষজ্ঞ ও সাংবাদিক গুইলেম বালাগুয়ে।

স্কাই স্পোর্টসে ফুটবল বিশেষজ্ঞ হিসাবে কাজ করা গুইলেম জোর দিয়ে বলছেন না, মেসি চলে যেতে পারেন অন্যত্র। বিষয়টি নিয়ে মেসি ভাবতে পারেন বিস্তর। তবে মেসির ইংরেজি শেখা ও তার জাতীয় দলের সতীর্থ ম্যানচেস্টার সিটির সার্জিও অ্যাগুয়েরোর বিভিন্ন পরামর্শ নতুন কোন খবরের জন্মও দিতে পারে।

স্পেনে কর জটিলতার কারণে মেসি বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছেন। আয়কর ফাঁকির মামলায় মেসি ও তার বাবা দৌঁড়াচ্ছেন আদালতে। কিছুদিন আগে জোর খবর দিয়েছিল স্প্যানিশ মিডিয়া, যেখানে উল্লেখ করা হয়, শুধু বার্সেলোনা নয়, স্পেনই ছাড়তে পারেন মেসি।

সে ক্ষেত্রে মেসিকে পেতে মুখিয়ে আছেন ইংল্যান্ডের দুই ক্লাব চেলসি ও ম্যানচেস্টার সিটি। এর পেছনে প্রভাবক হিসাবে কাজ করছেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো। ফুটবল বিশেষজ্ঞ গুইলেম বালাগুয়ে বলেছেন, ‘সার্জিও অ্যাগুয়েরো ও সেস ফ্যাব্রিগাসের কাছ থেকে ইংল্যান্ড ও প্রিমিয়ার লিগের গুণাবলী ও সৌন্দর্য সম্পর্কে শুনেছেন মেসি। যাতে বেশ আকর্ষণ বেড়েছে মেসির। নতুন চ্যালেঞ্জ নেয়ার প্রবণতা ভর করতে পারে তার মধ্যে’।

তিনি আরও বলেছেন, ‘সে (মেসি) ক্রমেই পরিণত হচ্ছে। সে নিজেকে ইংল্যান্ডের ফুটবল লিগে কল্পনা করতেই পারে। এ কারণেই সে ইংরেজি শিখছেন, যদি কাজে লেগে যায়। সম্ভাবনা কাজে লাগানোর জন্যই সে (মেসি) প্রস্তুত হচ্ছেন’।

তবে বার্সার খামার বাড়ি পরিচিত লা মেসিয়া থেকে যে মেসির উৎপত্তি, সেই জায়গা ছেড়ে যেতে পারবেন কি মেসি? যাদের হয়ে জিতেছেন ছোট-বড় ২৫টি শিরোপা। জিতেছেন রেকর্ড চারবার ফিফা বর্ষসেরা খেতবাও। যদিও মেসির বাবা জোর গলায় কিছুদিন আগেই বলেছেন, অন্য কোথাও যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না মেসির। আবার বার্সা সভাপতি বার্তামেও বলেছেন, বার্সাতেই অবসরে যাবেন মেসি।

তবে পরিস্থিতি ভিন্ন। যেখানে যোগ হয়েছে স্পেনের সমৃদ্ধ রাজ্য কাতালুনিয়ার পট পরিবর্তন। স্পেন থেকে এই রাজ্য স্বাধীন হয়ে গেলে লা লিগায় খেলতে পারবে না বার্সেলোনা। ইতোমধ্যে বার্সাকে ফরাসি লিগ ওয়ানে খেলার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ভবিষ্যতের কথা ভেবেই কি মেসির এই ইংরেজি শেখার আয়োজন? শেষ পর্যন্ত কী হয়, তা সময়ই বলে দেবে।






মন্তব্য চালু নেই