মেইন ম্যেনু

ইউপি নির্বাচন বর্জনের চিন্তা বিএনপির

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রথম দুই ধাপে ভোট ডাকাতি এবং ব্যাপক সহিংসতার অভিযোগ তুলে নির্বাচন বর্জনের চিন্তা করছে বিএনপি।

রোববার রাতে দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এতে অনেকে নির্বাচন বর্জনের পক্ষে মত দিলেও কেউ কেউ নির্বাচনে থাকার পক্ষে কথা বলেছেন।

আজ সোমবার জোটের শরিক দলগুলোর শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বৈঠক শেষে এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের সামনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের বক্তব্য তুলে ধরা হবে।

এর আগে রোববার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়ম ও জালিয়াতির অভিযোগ এনে ভোট বাতিল এবং নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ চেয়েছেন।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের ওই বৈঠক রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি নেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ছাড়াও দলের তৃনমূলের সাংগঠনিক পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার অগ্রগতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনে সামগ্রিক বিষয় বৈঠকের আলোচনায় স্থান পেয়েছে বলে জানা গেছে।

খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আ স ম হান্নান শাহ, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মীর মোহাম্মদ নাসির, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রথম দুই ধাপ বিচ্ছিন্ন সহিংসতা এবং অনিয়মের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে। নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত হয়েছেন ৪২ জন।






মন্তব্য চালু নেই