মেইন ম্যেনু

ইউরোপ-আমেরিকার চেয়েও বাংলাদেশ নিরাপদ : ইনু

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে বাংলাদেশ ইউরোপ-আমেরিকার চেয়েও বেশি নিরাপদ।’

শুক্রবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে প্রয়াত সাংবাদিক আজিজুল হক স্মরণে এক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের তুলনায় ইউরোপ-আমেরিকা বেশি জঙ্গি অধ্যুষিত। তাদের চেয়ে বাংলাদেশ সরকার জঙ্গি দমনে বেশি তৎপর ও সফল। আমি মনে করি, বাংলাদেশ সে তুলনায় অনেক নিরাপদ।’

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের দু’এক জন মানুষ বা ব্লগার মারা গেলেই অনেকে বলেন, গণতন্ত্র শেষ হয়ে গেছে। তাদের উদ্দেশে বলতে চাই, গণতন্ত্র একটি কাচের গ্লাস নয় যে, বিচ্ছিন্ন দু’একটি ঘটনা ঘটলেই এটি ভেঙে যাবে। তাই যদি হতো, তাহলে ব্রাসেলস এয়ারপোর্টে বা প্যারিসে হামলার এতো বড় ঘটনা ঘটার পর দেশ দুটির অস্তিত্বই আর থাকার কথা নয়।’

ইনু আরো বলেন, ‘গণমাধ্যমে দেখেছি, বিদেশিরা বলছেন, বাংলাদেশের গণমাধ্যম নাকি চাপের মুখে আছে। কিন্তু আমি গণমাধ্যমের প্রধানদের সঙ্গে কথা বলে, এমন কোনো অভিযোগ পাইনি। সুতরাং বিদেশিদের এসব কথা মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।’

এসময় তিনি বিদেশিদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনার বাংলাদেশের দিকে আঙুল না উঁচিয়ে নিজেদের প্রতি লক্ষ্য করুন। আপনার নিজেরাই অনেক সমস্যায় জড়জড়িত।’

এসময় প্রয়াত সাংবাদিক আজিজুল হকের পরিবারকে ডিআরইউর কল্যাণ তহবিল থেকে ৩ লাখ টাকার চেক তোলে দেন তথ্যমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে ডিআরইউর সভাপতি জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে এসময় সংগঠনের সাবেক সভাপতি সাফিকুল করিম সাবু, কল্যাণ সম্পাদক জিলানী মিল্টন, প্রচার সস্পাদক কামরুজ্জামান কাজল, ক্রীড়া সম্পাদক মুজিবুর রহমান, প্রয়াত সাংবাদিক আজিজুল হকের বড় ছেলে তানভীর আজিজ, ছোট ছেলে ফয়সার আজিজ উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই