মেইন ম্যেনু

ইউরো থেকে বহিস্কার করা হবে রাশিয়াকে!

আগেরদিনই ইউরোপিয়ান ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা উয়েফা থেকে হুমকি দেয়া হয়েছিল রাশিয়া আর ইংল্যান্ডের সমর্থকরা যদি আর কোন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটায়, তাহলে তাদের দুই দলকেই ইউরোতে অযোগ্য ঘোষণা করা হবে একই সঙ্গে বহিস্কারও করা হবে। হুমকির পরও রাশিয়ান সমর্থকদের দাঙ্গাবাজি কমেনি। ইংলিশ সমর্থকদের পেলেই জড়িয়ে পড়ছে সংঘর্ষে।

ফলে চলমান ইউরো থেকে রাশিয়াকে বহিস্কারেরই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললো উয়েফা। ‘বি’ গ্রুপে তাদের প্রতিপক্ষ যারা রয়েছে, তাদেরকে পয়েন্ট ভাগ করে দেয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা হয়। তবে, উয়েফা বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েও সেটা পরে স্থগিত করে নিল। একই সঙ্গে চূড়ান্ত আল্টিমেটাম দিয়ে দেয়া হলো যে, এরপর রাশিয়ার আর কোন সমর্থক যদি সংঘর্ষে জড়ায়, তাহলে অটোমেটিক ইউরো থেকে বহিস্কার হয়ে যাবে তারা।

একই সঙ্গে রাশিয়াকে দেড় লাখ ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে। রাশিয়াকে একই সঙ্গে গ্যালারিকে আগুন জ্বালানো এবং বর্ণবাদী আচরণ করার দায়ে অভিযুক্ত করা হয়। শুধু শাস্তিতেই থেমে থাকছে না উয়েফা। পুলিশকে সাথে নিয়ে ফ্রান্স থেকে রাশিয়ান সমর্থকদের বের করে দেয়ারও কাজ শুরু হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু রাশিয়ান সমর্থককে বিতাড়িত করা সম্ভব হয়েছে বলেও জানিয়েছে ফ্রান্স পুলিশ।

একই সঙ্গে ফরাসি কর্তৃপক্ষ এটাও জানিয়েছে, রাশিয়ান হুলিগানদের সঙ্গে পেরে ওঠাও সম্ভব হচ্ছে না। কারণ, তারা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। ফ্রান্সে এসেছে তারা দাঙ্গাবাজি করার জন্যই। রাশিয়ার ক্রীড়ামন্ত্রী ভিটালি মুটকো জানিয়েছেন, উয়েফার সিদ্ধান্ত মেনে চলতে বাধ্য রাশিয়া। এছাড়া তো আর কোন উপায় নেই তাদের কাছে।






মন্তব্য চালু নেই