মেইন ম্যেনু

ইতিহাসে নেইমার

কেন তিনি বিশ্ব ফুটবলের সেরাদের একজন তার প্রমাণ আরও একবার দেখালেন নেইমার। শনিবার রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষে একাই চার গোল করেন তিনি। ব্রাজিলিয়ান তারকার অসাধারণ পারফরম্যান্সের সৌজন্যে বার্সেলোনাও ৫-২ গোলে উড়িয়ে দেয় রায়ো ভায়েকানোকে।

চোটের কারণে এদিনও দর্শকের ভুমিকায় ছিলেন বার্সেলোনার সেরা তারকা লিওনেল মেসি। সেই সুযোগটা শুরুতেই কাজে লাগায় সফরকারী ভায়েকানো। ১৫ মিনিটেই বার্সার জালে বল জড়ায় দলটি।তবে, গোল উৎযাপনটা খুব বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেননি তারা।

ম্যাচের ২২ মিনিটেই পেনাল্টিতে গোল করে নিজেদের মাঠে বার্সাকে সমতায় ফেরান নেইমার।১০ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করেন এই ব্রাজিলিয়ান। এর ফলে ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

দ্বিতীয়ার্ধেও নেইমারের চমক। ৬৯ মিনিটে চলতি মৌসুমে লা লিগায় প্রথম হ্যাটট্রিক করেন তিনি। তৃতীয় গোলের পর ৭০ মিনিটে আবারও ভায়েকানোর জালে বল জড়ান নেইমার। এর ফলে ২০০৪ সালের পর প্রথম ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড় হিসেবে লিগার এক ম্যাচে ৪ গোলের রেকর্ড গড়েন তিনি। এক দশকেরও বেশি সময়ের আগের রেকর্ডটি ছিল জুলিও বাতিস্তার।

শুধু তাই নয়। গত সাত বছরের মধ্যে মেসির পর নেইমারই একমাত্র ফুটবলার যিনি বার্সেলোনার জার্সিতে চার গোল করার ইতিহাস গড়লেন। তার আগে ২০০৮ সালের নভেম্বরে চার গোল করার রেকর্ডটি ছিল স্যামুয়েল ইতোর।

শনিবার রায়ো ভায়েকানোর বিপক্ষে নেইমার ছাড়া বাকী গোলটি আসে লুইস সুয়ারেজের পা থেকে। ৭৭ মিনিটে দলের পঞ্চম গোলটি করেন তিনি। আর ভায়েকানোর দ্বিতীয় গোলটি করেন সানচেজ রুইজ।






মন্তব্য চালু নেই