মেইন ম্যেনু

ইন্দোনেশিয়ার নিখোঁজ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে

৫৪ জন যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার অভ্যন্তরীণ রুটের বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। দেশটির দুর্গম পাপুয়া প্রদেশে বিমানের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পাওয়া গেছে বলে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। রোববার স্থানীয় সময় দুপুরে বিমানটির সঙ্গে বিমানবন্দরের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় খোঁজ ও উদ্ধার সংস্থা (বাসারনাস) জানিয়েছে, অভ্যন্তরীন রুটে চলাচল করা ট্রিগানা এয়ারলাইন্সের এটিআরফোরটু-৩০০ টুইন টারবোপ্রপ বিমাটিতে মোট ৫৪ জন আরোহী ছিল। এদের মধ্যে ৪৪ জন প্রাপ্তবয়স্ক যাত্রী, পাঁচ শিশু ও পাঁচ ক্রু ছিল। বিমানটি পাপুয়া প্রদেশের জায়াপুরার সেনতাই বিমানবন্দর থেকে প্রাদেশিক রাজধানী ওকসিবিল যাচ্ছিল। পাপুয়ার পূর্ব এলাকা থেকে অবতরণের মাত্র নয় মিনিট আগে বিমানটির সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বারনাসের প্রধান বামবাং সোয়েলিসতিও টেলিফোনে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, এটি পাপুয়া অঞ্চলের ওপর দিয়ে স্থানীয় সময় ২ টা ৫৫ মিনিটে উড়ে যাচ্ছিল।

ইন্দোনেশিয়ার যোগাযোগমন্ত্রী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ওকসিবিল এলাকার বিনতাং পার্বত্য এলকায় বিমানটির ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। স্থানীয় গ্রামবাসী পাহাড়েরর ওপর বিধ্বস্ত বিমানটিকে খুঁজে পায়। তবে বিধ্বস্ত বিমানটির কোন যাত্রী বেঁচে আছে কিনা তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত বছর ডিসেম্বরে ইন্দোনেশিয়ার সুরবায়া থেকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে স্বল্প ভাড়ার বিমান সংস্থা এয়ার এশিয়ার একটি বিমান সাগরে বিধ্বস্ত হয়। ওই ঘটনায় বিমানটির ১৬২ আরোহী নিহত হয়।






মন্তব্য চালু নেই