মেইন ম্যেনু

ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে তুরস্ক

শেষ পর্যন্ত ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে তুরস্ক। শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার টেলিফোনের পর তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান শনিবার এ ঘোষণা দেন। রোববার বার্তা সংস্থা এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে ইরাকের মসুলে শতাধিক সেনা ও সামরিক যান পাঠায় তুরস্ক। এরপরই বাগদাদ এর প্রতিবাদ জানাতে শুরু করে। তুরস্কের দাবি, মসুলে ইরাকি সেনাদের প্রশিক্ষণের জন্য তুর্কি সেনা রয়েছে। তাদের নিরাপত্তা জোরদার করতেই নতুন করে সেনা পাঠানো হয়েছে। বাগদাদ সেনা ফিরিয়ে নিতে তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানালেও এতে কর্ণপাত করেনি এরদোগান সরকার। শেষ পর্যন্ত শুক্রবার এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। শুক্রবার ওবামা টেলিফোনে এরদোগানকে ইরাকের সঙ্গে চলমান উত্তেজনা প্রশমনের আহ্বান জানান। এর জন্য ইরাক থেকে তুর্কি সেনা প্রত্যাহার করার বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে এরদোগানকে অনুরোধ করেন ওবামা। একইসঙ্গে তুর্কি প্রেসিডেন্টকে ইরাকের সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতার প্রতি সম্মান জানানোর আহ্বানও জানান ওবামা।

শনিবার তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইরাকের স্পর্শকাতরতার বিষয়টি বিবেচনা করে তুরস্ক মসুল প্রদেশ থেকে সেনা প্রত্যাহার করবে, যার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।’

এক জ্যেষ্ঠ তুর্কি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সোমবার মসুল থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু হবে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই