মেইন ম্যেনু

ইলিশে সয়লাব বরিশাল, কমেছে দাম

ঈদের প্রথম দিন মানুষ ব্যস্ত ছিল পশু কোরবানি নিয়ে। এদিন তাই নদী বা সাগরে যাওয়া হয়নি জেলেদের। কিন্তু ঈদের একটি দিন পরেই ইলিশে সয়লাব হয়ে গেছে বরিশালের বাজার। কর্মব্যস্ত সময় পার করেছেন মাছ ব্যবসায়ীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই নগরীর পোর্ট রোডের অবতরণ কেন্দ্রে প্রচুর ইলিশ মাছ আসতে শুরু করেছে। জেলেরা সাগর ও নদী থেকে মাছ শিকার করেই সকালে চলে আসছে এ মোকামে। এখান থেকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাচ্ছে ইলিশ মাছ। তবে ঈদের আগের চেয়ে দাম কিছুটা কমেছে। ২/১ দিনের মধ্যে আরও কমে যাবে বলে ধারণা করছেন ব্যবসায়ীরা।

অবতরণ কেন্দ্রের আড়তদার নাসির উদ্দিন জানান, ‘মাছের দাম কিছুটা কমেছে। ঈদের আগে মন প্রতি ৫০০ গ্রামের (ভ্যালকা) ইলিশের দাম ছিলো ১৮ হাজার টাকা। বর্তমানে সে মাছ সাড়ে ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকায় কেনাবেচা হচ্ছে। আগে এলসি (সাড়ে ৬০০ থেকে সাড়ে ৯০০ গ্রাম) সাইজের মাছ ২৮ হাজার টাকায় বিক্রি হলেও আজ বিক্রি হচ্ছে ২৫-২৬ হাজার টাকার মধ্যে। এক কেজির মাছ আগে বিক্রি হয়েছে ৪০ হাজার টাকায় তা এখন হচ্ছে ৩৮ হাজার হাজার টাকায়।

তিনি জানান, তবে এক কেজি বেশি বা দেড়কেজি সাইজের ইলিশের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।
বরিশাল মৎস আড়ৎদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক নীরব হোসেন টুটুল জানান, ঈদের কারণে জেলেরা নদী বা সাগরে তেমন একটা যায়নি। ঈদের পরদিন থেকে মাছ ধরা শুরু করে জেলেরা। আজ আজ প্রচুর মাছ এসেছে বাজারে। অবতরণ কেন্দ্র থেকে পাঁচশ মনের অধিক মাছ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো যাবে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই