মেইন ম্যেনু

ইসরাইলি কারাগারে দেড়শ’ বন্দীর অনশন ধর্মঘট

ফিলিস্তিনের এক বেসরকারি সংস্থা বলছে, গত এক সপ্তাহ ধরে অনশন ধর্মঘট পালন করছে ইসরাইলি কারাগারে প্রায় ১৫০ ফিলিস্তিনি কারাবন্দী। সম্প্রতি এসকল কারাবন্দীদের স্থানান্তর করে দেশটির নাফা জেলখানায় নিয়ে আসা হয়। কিন্তু তারা চাইছে, তাদের আগের কারাগারেই রাখা হোক। রোববার এ খবর দিয়েছে প্রেস টিভি।

কারাবাসীদের জন্য ফিলিস্তিনের বেসরকারি সংস্থা প্রিজনার্স সোসাইটির প্রধান কাদোরা ফারিস বলেন, গত ২৪ ঘন্টায় ফিলিস্তিনের রিমন ও ইমেল কারাগারের মতো অন্যান্য কারাগারে আটক বন্দীরাও এই অনশন ধর্মঘটে যোগ দিয়েছে।

সংস্থাটি বলছে, ইসরাইলি প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে সেখানকার জেলখানাগুলোতে সাড়ে ছয় হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নাগরিক বন্দী রয়েছে। যাদের মধ্যে ৪৬৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে ইসরাইলি প্রশাসন।

তাদেরকে কোন ধরনের অভিযোগ এবং শুনানি ছাড়াই সেখানে আটক রাখা হয়েছে বলে দাবি করছে প্রিজনার্স সোসাইটি। এমনিভাবে ইসরাইলি প্রশাসন ফিলিস্তিনিদের কমপক্ষে ছয় মাস আটক রাখছে কোন অভিযোগ এবং বিচার প্রক্রিয়া ছাড়াই। এছাড়াও, সেখানে ইচ্ছামতো আটকের সময়সীমা বাড়ানো হয়।

তবে সংস্থাটি দাবি করছে, ফিলিস্তিনি কারাবন্দীরা শুধুমাত্র আগের কারাগারে ফিরে যেতেই অনশন ধর্মঘট পালন করছে তা নয়। কারাগারে অবৈধভাবে আটকে রাখা এবং তাদের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত রাখার প্রতিবাদে বন্দীরা অনশন ধর্মঘট শুরু করেছে।






মন্তব্য চালু নেই