মেইন ম্যেনু

ইসরায়েলি স্কুলে আরব-ইহুদি প্রেমকাহিনীও নিষিদ্ধ

ইসরায়েলের শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশটির হাই স্কুলগুলোতে একটি আরব-ইহুদী প্রেমের উপন্যাসকে পাঠ্য-পুস্তক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার অনুরোধও প্রত্যাখ্যান করেছে।

ইসরায়েলের দৈনিক পত্রিকা ডেইলি হারেজ বৃহস্পতিবার এই সংবাদে এ তথ্য প্রকাশ করেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের লেখা প্রত্যাখ্যান পত্রটি পত্রিকায় প্রকাশিত হলে দেখা যায়, সেখানে এই নিষেধাজ্ঞার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে যে, তরুণ শিক্ষার্থীরা এই এ ধরনের গল্পের মর্ম বুঝতে পারবে না।

তবে মন্ত্রণালয় স্পষ্ট করে বলেনি কেন তারা ইসরায়েলি লেখিকা দোরিত রাবিনিয়ান এর লেখা আরব এবং ইহুদি প্রেমের উপন্যাস ‘গাদের হায়া’কে (ইংরেজি- বর্ডার লাইফ) স্কুলের পাঠ্যপুস্তক তালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন।

তারা শুধু বলেছেন, ছাত্রদের পরিচয় এবং উত্তরাধিকার রক্ষার্থে তারা এটি করেছেন। কারণ ইহুদি এবং বিধর্মীদের মধ্যকার সম্পর্ক ছাত্রদের পরিচয় সঙ্কটে ফেলে দিতে পারে। কিন্তু স্কুলের শিক্ষকরা বইটিকে পাঠ্যপুস্তকের অন্তর্ভুক্ত করার অনুরোধ করেছিলেন।

রাবিনিয়ান এর লেখা ‘বর্ডার লাইফ’ হিব্রু ভাষায় প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল। গল্পে লিয়াত নামের একজন ইসরায়েলি অনুবাদক এবং হিলমি নামের একজন ফিলিস্তিনি শিল্পী আমেরিকার নিউইয়র্ক শহরে থাকা অবস্থায় প্রেমে পড়েন কিন্তু শেষে তারা বিচ্ছিন্ন হয়ে যে যার দেশের নির্ধারিত জায়গায় ফিরে যান। এ বছর বইটি একটি আন্তর্জাতিক পুরস্কারও পেয়েছে।

সংবাদপত্র হারেজের প্রকাশিত তথ্যমতে, এই বইটিকে বাদ দেয়ার পেছনে ইসরায়েলের শিক্ষামন্ত্রী নাফতালি বেনেটের হাত রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই