মেইন ম্যেনু

ইসিকে না জানিয়েই গাজীপুরে পুনর্বহাল সেই বিতর্কিত এসপি

নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) না জানিয়েই গাজীপুরে পুনর্বহাল করা হলো বিতর্কিত পুলিশ সুপার (এসপি) হারুন অর রশিদকে।

মঙ্গলবার (৩ মে) গাজীপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানানো হয়েছে। দু’একদিনের মধ্যে তিনি কার্যালয়ের দায়িত্ব নেবেন।

তৎকালীন বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ বিএনপির প্রভাবশালী নেতা জয়নাল আবদিন ফারুককে লাঠিপেটা করাসহ বিভিন্ন ঘটনায় বিতর্কিত হারুন অর রশিদকে গত ২১ এপ্রিল প্রত্যাহারের নির্দেশ দেয় ইসি।

শ্রীপুরের এক ইউপি সদস্য প্রার্থীকে কুপিয়ে হত্যার পর নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার ও দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে তাকে প্রত্যাহার করা হয়। একই সঙ্গে প্রত্যাহার হয়েছিলেন কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর রকিবুল হক ও শ্রীপুর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামানও।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী, গত ২১ এপ্রিল এসপি হারুনকে গাজীপুর থেকে প্রত্যাহার করার পর নির্বাচন সম্পন্ন হয়। এরপর তার প্রত্যাহারের আদেশ তুলে নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাকে আবারও গাজীপুরের এসপি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইসি সিরাজুল ইসলাম রাতে বলেন, এসপি হারুনকে পুনর্বহালের বিষয়ে আমাদের কিছুই জানানো হয়নি। আমরা কালকেই এ নিয়ে বৈঠকে বসবো। কোনো সরকারি নির্দেশনা এসেছে কি না দেখবো। তারপরই আপনাদের (সাংবাদিকদের) জানানো হবে।

প্রসঙ্গত, বিগত আওয়ামী সরকারের আমলে (২০০৮-২০১৩) ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার থাকাকালীন হারুন অর রশিদ তৎকালীন বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নাল আবেদিন ফারুককে জাতীয় সংসদের সামনে হরতালের দিনে নৃশংসভাবে লাঠিপেটা করে রক্তাক্ত করেছিলেন। এ ঘটনা নিয়ে গণমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছিল।

এসপি মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ বিপিএম, পিপিএম (বার) পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক।






মন্তব্য চালু নেই