মেইন ম্যেনু

ইয়েমেনে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘণ করে লড়াই চলছে

ইয়েমেনে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে অস্ত্রবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরের কয়েক ঘণ্টা পরেই দু পক্ষের মধ্যে লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। আরব নেতৃত্বাধীন জোট হুতি বিদ্রোহীদের লক্ষ্য করে বিমান হামলা শুরু করেছে এবং স্থল হামলারও খবর পাওয়া গেছে। তবে এসব হামলায় তাৎক্ষণিকভাবে হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

আরব জোট শনিবার সকালে ইয়েমেনের রাজধানী সানায় বিমান হামলা চালিয়েছে। এছাড়া দেশের তৃতীয় বৃহত্তম নগরী তাইজে হুতি বিদ্রোহী এবং তাদের প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে স্থললড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। তবে চুক্তি লঙ্ঘণের জন্য উভয় পক্ষেই পরস্পরকে দোষারোপ করেছে।

শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ১২টা ৫৯ মিনিটে দু পক্ষের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে বলে ঘোষণা দিয়েছিল জাতিসংঘ। এই অস্ত্রবিরতি চুক্তির মেয়াদ ছিল ১৭ জুলাই পর্যন্ত। ইয়েমেনে মানবিক সহায়তা নিশ্চিত করতে ইয়েমেনের নির্বাসিত সরকার এবং শিয়াপন্থি হুতি বিদ্রোহীদের মধ্যে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়েছিল। কিন্তু চুক্তিটি স্বাক্ষরের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই লড়াইয়ে ফিরে যায় ইয়েমেনের প্রতিদ্বন্দ্বী গোষ্ঠীগুলো।

এ সম্পর্কে ‘ইয়েমেন পোস্ট’ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক হাকিম আল মাসমারি আল জাজিরাকে বলেছেন,‘ইয়েমেনে কোনো অস্ত্রবিরতি চুক্তি সফল হবে এমনটি কেউ আশা করেনা। কেননা আমরা একটি আইন বহির্ভূত দেশে বসবাস করছি। যেখানে কোনো সরকার নয়-দেশ নিয়ন্ত্রণ করছে জঙ্গিরা।’






মন্তব্য চালু নেই