মেইন ম্যেনু

ই-স্ক্রিন জানাবে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা

এই প্রথম বিজ্ঞানীরা ইলেকট্রোনিক স্ক্রিন তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। এই স্ক্রিন হাতে লাগালে শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা জানা যাবে। এই স্ক্রিন দেখতে খুব পাতলা। এতে ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে হাতে চামড়ার ওপর খুব সহজেই লাগানো যায়।

এই ই-স্ক্রিন তৈরি করেছেন জাপানের একদল গবেষক। তারা কাজ করেন জাপানের টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ে।

প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েব সাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, এই স্ক্রিন চিকিৎসা ক্ষেত্রে ব্যবহারের পাশাপাশি পরিধেয়যোগ্য প্রযুক্তি পণ্যে ব্যবহার করা যাবে। বিশেষ করে স্মাট ওয়াচ, ফিটনেট ট্রেকারে এই প্রযুক্তি বেশ সহায়ক হবে। শরীরের ক্যালোরি, তাপমাত্রা পরিমাপের পাশাপাশি এটি দিয়ে অক্সিজেনের মাত্রাও জানা যাবে।

ই-স্কিন উদ্ভাবন দলের প্রধান গবেষক টময়উকি ইয়োকটা এবং তাঁর সহ-গবেষকেরা জানিয়েছেন, আঙুলে লাগালে এই যন্ত্র রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা পরিমাপ করে।

ইয়োকটা বলেন, ‘এই যন্ত্রের আলোকসংবেদী সেন্সরগুলো শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের ওপর সরাসরি রাখা যায় এবং অস্ত্রোপচারের আগে ও পরে রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা মাপা যায়।’

এই সুপার থিন ইলেকট্রোনিক স্ক্রিন তৈরি করতে বিজ্ঞানীরা ব্যবহার করেছেন, অর্গানিক পলিমার লাইট ইমেটিং ডায়োডস (পিএলইডি)। এটি মূলত ছোট আকারের শক্তি সাশ্রয়ী বাতি। এটিতে তিনটি রঙ রয়েছে। কাল, সবুজ এবং নীল। যখন শরীরের তাপ ইলেকট্রিক পালসকে উত্তপ্ত করবে তখন আলো জ্বলবে এবং নিভবে।

এই ডিসপ্লে দিয়ে সংখ্যা, লোগো প্রদর্শন করা যাবে। এটিতে যেকোনো লোগো এবং সংখ্যা যেমন ১, ২, ৩ প্রদর্শন করা যাবে। এ যেনো হাতেই ক্যালকুলেটরের পর্দা।






মন্তব্য চালু নেই