মেইন ম্যেনু

ঈদের ছুটিতে ঘুরে আসুন দেশের ভেতরের এই অসম্ভব সুন্দর রিসোর্টগুলো থেকে

ছুটিতে দেশের বাইরে নানারকম নয়নাভিরাম স্থানে ঘুরে আসার পরিকল্পনাতো থাকেই আমাদের। কিন্তু এই ঈদে একটু আলাদা কিছু নয় কেন? দেশের বাইরে নয়, বরং দেশের ভেতরেই প্রাকৃতির খুব কাছাকাছি চলে যেতে পারেন আপনি এই ঈদে। আর এবার বাংলাদেশের নৈসর্গিক সৌন্দর্যকে উপভোগ করতে আপনাকে সাহায্য করবে দেশের অসম্ভব সুন্দর এই রিসোর্টগুলো। চলুন তাহলে এক নজরে দেখে আসি ঈদের এই ছোট্ট ছুটিতে কোন কোন রিসোর্ট হতে পারে আপনার পরিকল্পনার সাথে একেবারে মানানসই। রিসোর্ট নিয়ে আমাদের ধারাবাহিক এই সিরিজে এবার থাকলো বাংলাদেশের আরো কিছু অসাধারণ সৌন্দর্যে ভরপুর রিসোর্টের খবর।

১. মারমেইড ইকো রিসোর্ট

কক্সবাজারের এই রিসোর্টটির বিশেষত্ব হল প্রকৃতির কাছকাছি থাকা আর অসাধারণ সি-ফুড। স্পা থাকলেও, ইকো-ফ্রেন্ডলি রাখতে রিসোর্টটিতে এসি, সুইমিং পুলের মতো বেশ কিছু সুবিধাই রাখা হয়নি। এমনকি ডেক চেয়ারগুলোও বানানো হয়েছে পুরোনো সামুদ্রিক নৌকা থেকে। সাবানসহ অন্যান্য টয়লেট্রিজ সামগ্রী বানানো হয় স্থানীয় হারবাল উপাদান দিয়ে। আর খাবার তো বটেই। মারমেইড রিসোর্টের ওপেন কিচেনে আপনি রান্নার সময় যেতেও পারবেন। থাকার জন্য আছে ওয়ান বেডরুম ওয়াটার বাংলো-এ, ওয়ান বেডরুম ওয়াটার বাংলো-বি, ওয়ান বেড উইথ লিভিং রুম ভিলা, ওয়ান বেডরুম স্টুডিও ভিলা এবং টু বেডরুম ভিলা।

কেমন খরচ

রিসোর্টটিতে থাকতে দিন প্রতি খরচ হবে আড়াই হাজার থেকে ছয় হাজার টাকা।

যেতে চাইলে

ঢাকা থেকে বিমান বা বাসে করে সরাসরি যাওয়া যায় কক্সবাজার। ট্রেনে যেতে চাইলে চট্টগ্রাম পর্যন্ত গিয়ে বাসে উঠতে হবে। কক্সবাজার থেকে মাইক্রো বা অন্য গাড়িতে করে কলাতলী বিচ পার হয়ে যেতে হবে মারমেইড ইকো রিসোর্টে।

যোগাযোগ

মারমেইড ইকো রিসোর্টের ঢাকার অফিসের ফিকানা- ৩২ প্রগতি সরণি (তৃতীয় তলা), বারিধারা, ব্লক-জি, গুলশান-২। আর রিসোর্টের ঠিকানা- মারমেইড বিচ, মেরিন ড্রাইভ, পেঁচার দ্বীপ, কক্সবাজার। ফোন- ০১৮৪১৪১৬৪৬৬-৯।

২. সায়েমান বিচ রিসোর্ট

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পারের এই বিচ রিসোর্টটি বিশেষভাবেই সৈকত উপভোগের জন্য বানানো। এসি, ওয়াই-ফাই তো আছেই, আরও আছে ইনফিনিটি পুল, লাইফস্টাইল জিম, নিজস্ব সৈকত, মার্কো পোলো গেমস রুম। থাকার জন্য আছে ৪ ধরনের বন্দোবস্তÑ প্যানোরমা ওশেন সুইট, সি ভিউ ডিলাক্স সুইট, সি ভিউ ডিলাক্স রুম এবং হিল ভিউ ডিলাক্স রুম। খাওয়া-দাওয়ার জন্য আছে ক্যাসাব্লাঙ্কা রেস্টুরেন্ট, ইউমি ইনফিনিটি পুল ক্যাফে, সার্ফ সাইড ক্যাফে, সানসেট বার এন্ড গ্রিল এবং নটিলাস প্রাইভেট ডাইনিং। এছাড়াও আছে মেরিনা বল রুম, কার্নিভাল হল, ওয়েভস মিটিং রুম, টাইডস মিটিং রুম, ড্রিফট মিটিং রুম এবং লাইট হাউস বারবিকিউ।

কেমন খরচ

রিসোর্টটিতে থাকতে খরচ পড়বে প্রতি দিন ৭ হাজার থেকে ৪৫ হাজার টাকা। তবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত নববিবাহিতদের জন্য আছে বিশেষ হানিমুন প্যাকেজ। ২ রাতের এই প্যাকেজটির জন্য গুনতে হবে ১৬ হাজার টাকা।

যেতে চাইলে

ঢাকা থেকে বিমান বা বাসে করে সরাসরি যাওয়া যায় কক্সবাজার। ট্রেনে যেতে চাইলে চট্টগ্রাম পর্যন্ত গিয়ে বাসে উঠতে হবে। কক্সবাজার থেকে মাইক্রো বা অন্য গাড়িতে করে কলাতলী বিচ যেতে হবে। তবে রিসোর্টের পক্ষ থেকে বিমানবন্দর থেকে নিজস্ব ব্যবস্থায় অতিথিদের রিসোর্টে নিয়ে আসার সুবিধা দেয়া হয়।

যোগাযোগ

রিসোর্টের ঠিকানা- সায়েমান বিচ রিসোর্ট, মেরিন ড্রাইভ রোড, কলাতলী, কক্সবাজার। ফোন- (০৯৬১০) ৭৭৭৮৮৮, ০১৭৫৫৬৯১৯১৭। ই-মেইল- [email protected]|






মন্তব্য চালু নেই