মেইন ম্যেনু

ঈদের ভিড় রাস্তায়, অসহনীয় যানজট

আসছে ঈদকে কেন্দ্র করে রাজধানীর মার্কেটগুলোতে চলছে কেনা-কাটার ধুম। ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়ের প্রভাব এবার মার্কেট ছাড়িয়ে রাস্তায় পড়তে শুরু করেছে।

শনিবার সরকারি ছুটির দিন হলেও যানজট থেকে নিস্তার মেলেনি রাজধানীবাসীর। ঈদের কেনাকাটা করতে রাস্তায় মানুষের ভিড় ও শহরের রাস্তাঘাট সংস্কারে ধীর গতি, সব মিলিয়ে তীব্র যানজটে নাস্তানাবুদ নগরবাসী।

শনিবার বেলা ১১টার পর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন ব্যস্ততম সড়কে যানজটে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে রাজধানীবাসীকে। রাজধানীর শান্তিনগর, মালিবাগ মোড়, বেইলী রোড, মৌচাক, রামপুরা, বাড্ডা, বাংলামোটর, কারওয়ানবাজার, পান্থপথ, ফার্মগেট, শাহবাগ, নিউমার্কেট, মহাখালী ও মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় তীব্র যানজট দেখা যায়।

এ সব এলাকায় অবস্থানরত মার্কেটগুলোকে ঘিরে ঈদের কেনাকাটা করতে আসা মানুষের উপচেপড়া ভিড় এই যানজটের প্রধান কারণ বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন। এর বাইরে ঢাকার যানজটের নিয়মিত কারণগুলো তো আছেই।

তবে মৌচাক ও মালিবাগ মোড়, শান্তিনগর থেকে রামপুরা পর্যন্ত সড়কে যানজটের প্রধান কারণ হিসেবে ফ্লাইওভারের নির্মাণকাজকেই মনে করেছেন অনেক যাত্রী।

পরিবারের জন্য নতুন পোশাক কিনতে আসা এম সালেকিন বলেন, ‘সরকারি ছুটির দিনে ঈদের কেনাকাটা করতে মার্কেটে এসেছি। ভেবেছিলাম ভিড় একটু কম হবে। কিন্তু ফ্লাইওভার নির্মাণের নানা সরঞ্জাম রাখার কারণে সরু রাস্তা ও যত্রতত্র যাত্রী ওঠা-নামাতেও প্রচণ্ড যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।’

সরেজমিনে আরো দেখা যায়, ঈদের কেনাকাটা করতে বের হওয়াতেও সড়কে প্রাইভেটকার ও অন্য যানবাহন যত্রতত্র পার্কিং করে রাখা হয় শপিংমল সংলগ্ন সড়কগুলোতে। তাই যানজট তৈরি হচ্ছে বেশি।

মৌচাক মার্কেট ও ফরচুন শপিংমল, মালিবাগে হোসাফ টাওয়ার, শান্তিনগরে টুইন টাওয়ার কনকর্ড শপিংমল, কর্ণফুলী মার্কেট, বেইলী রোডের বিভিন্ন দেশীয় ব্রান্ডের শো-রুমে ক্রেতাদের ভিড় বাড়ায় এই সড়কগুলোতে যানজট বেশি তৈরি হচ্ছে বলে যাত্রীরা জানান।

বেলা সোয়া ১১টায় রামপুরা হাজীপড়া থেকে কাকরাইল পৌঁছাতে সোয়া দুই ঘণ্টা লেগেছে বলে জানান সৈয়দ অনিক নামের এক যাত্রী। তিনি বলেন, ‘অন্য সময় যানজট থাকলেও শনিবারে এমন যানজটে পড়তে হবে ভাবিনি। মনে হয় ঈদের যানজট শুরু হয়েছে।’

উত্তরা থেকে মিরপুর হয়ে ফার্মগেটে আসা যাত্রী মিলন বলেন, ‘মিরপুর থেকে ফার্মগেট পুরো রাস্তায় যানজট। ফার্মগেট আসতে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় দেড়গুণ সময় লেগেছে। মিরপুর রোডেও তীব্র যানজট। মূলত ঈদের ক্রেতাদের কারণে এই অতিরিক্ত যানজট।’

এ ছাড়া মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের ব্যাপক সমাগমের কারণে বনানী, গুলশান-১ ও গুলশান-২ এলাকার লোকজনকেও যানজটে পড়তে হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই