মেইন ম্যেনু

ঈদের লম্বা ছুটির পরে কাজে ফেরার টিপস

এবার ঈদুল আযহায় লম্বা ছুটি কাটাচ্ছেন অনেকেই। আর দীর্ঘ ছুটিতে অনেক সময় ধরে ঘুমানো, টিভি দেখা, আত্মীয় ও বন্ধুর বাসায় বেড়ানো ইত্যাদি কাজেই কাটছে সময়। ছুটি উপভোগ করার শেষে অস্বস্তিকর বিষয়টি মনে পড়ে আর তা হল কাজে ফিরতে হবে। হ্যাঁ এটাই বাস্তবতা – ছুটি শেষে কাজে ফিরতে হবে। ছুটির আনন্দ উপভোগের পড়ে আপনি যেন কাজের আনন্দে মেতে উঠতে পারেন সে বিষয়ে জেনে নিন কিছু টিপস।

১। তালিকা করুন

কোন দীর্ঘ ছুটির পড়ে কাজে ফেরার আগে আপনার কাজের একটি তালিকা তৈরি করুন। ছুটির আগে সর্বশেষ যে কাজটি করেছেন তা ও তালিকাভুক্ত করে নেয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। এতে করে আপনি কোথায় কাজ শেষ করেছিলেন তা মনে করতে পারবেন, যা নতুন কাজ শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয়। তালিকাটি দীর্ঘায়িত করার প্রয়োজন নেই। সংক্ষেপে আপনার যে কাজ গুলো করতে হবে তা তালিকাভুক্ত করুন। তবে তালিকাটি তৈরি করবেন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অর্থাৎ যে কাজগুলো বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা তালিকার প্রথমে রাখুন এবং কম গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো রাখুন তালিকার শেষের দিকে। এর ফলে আপনার কাজ করা অনেক সহজ হবে।

২। লাঞ্চ বক্সে গরুর মাংস বাদ দিন

গুরুর মাংস শারীরিক কর্মক্ষমতা এবং ফিট থাকার জন্য উপকারী। কিন্তু যেকোন কিছুই অতিরিক্ত হওয়া খারাপ। কোনবানীর ঈদেতো গরুর মাংস খাওয়া হয় প্রচুর। গরুর মাংসের প্রোটিন ও অতিরিক্ত কোলেস্টেরল হজম করতে পাকস্থলিকে প্রচুর কাজ করতে হয়। তাই পাকস্থলিকেও কিছুটা বিশ্রাম দেয়া প্রয়োজন। তাই ঈদের পরে অফিসে যাওয়ার সময় আপনার লাঞ্চ বক্সে গরুর মাংস বাদ দিয়ে মাছ ও সবজি রাখুন এবং ফল খান। এতে আপনার পরিপাক তন্ত্র বিশ্রাম পাবে এবং আপনিও সুস্থ থাকতে পারবেন।

৩। মেইল চেক করুন

কর্মক্ষেত্রের প্রথম দিনেই আপনার ডেস্কে হয়তো অনেক কাজ জমা হয়ে গেছে। এজন্য প্রথমেই ইনভেলাপ ও মেইল ওপেন করে ইনবক্সের সবগুলো মেইল খুলে দেখুন। পরে দেখবেন বলে জমিয়ে রাখবেন না। তবে গুরুত্বপূর্ণ মেইলগুলোই আগে চেক করা উচিৎ। প্রথমেই এগুলো দেখে শেষ করে ফেললে আপনার কাজ অনেকটা কমে যাবে।

৪। একেবার অনেক কাজ শুরু করবেন না

আপনাকে হয়তো অনেক ধরণের অনেক কাজ করতে হবে। কিন্তু তাই বলে সব ধরণের কাজ একসাথে শুরু করবেন না। যে কোন একটি কাজ শুরু করুন এবং মনোযোগ দিয়ে সে কাজটি সম্পন্ন করার পড়ে অন্য কাজে হাত দিন। এক সাথে অনেক কাজ শুরু করলে হযবরল হয়ে যাবে এবং আপনার স্ট্রেস বৃদ্ধি পাবে। ছুটিতে আপনি যে প্রশান্তি অর্জন করেছেন তা নষ্ট করার কি প্রয়োজন! এটাই কি ভালো নয় যে, কাজ করলেন এবং প্রশান্তি ও বজায় থাকলো।

৫। বাঁধা দূর করুন

কাজ ভালো ভাবে সম্পন্ন করার জন্য আপনার বাঁধাগুলোকে চিহ্নিত করুন এবং সেগুলোকে এড়িয়ে যান। ৫ মিনিট পর পরই যদি কাজের মধ্যে বাঁধা আসে তাহলে সময় মত কাজ সম্পন্ন করা অসম্ভব। এজন্য কর্মক্ষেত্রে আপনার সেল ফোনটি অফ রাখতে পারেন এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম যেমন ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদির অ্যাকাউন্টগুলো ও বন্ধ রাখুন।

৬। সময় মত অফিস ত্যাগ করুন

আপনি অনেকদিন ছুটিতে ছিলেন বলেই অফিস টাইমের পরেও আপনাকে অফিসে থাকতে হবে এমন নয়। সময়মত অফিসে উপস্থিত হওয়া যেমন জরুরী তেমনি কাজ শেষে নির্দিষ্ট সময়ে অফিস ত্যাগ করাও জরুরী। এতে করে আপনার কাজের প্রতি আগ্রহ থাকবে এবং পরিবারকেও সময় দিতে পারবেন।






মন্তব্য চালু নেই