মেইন ম্যেনু

উত্তরায় গৃহবধূর আত্মহত্যা : স্বামী আটক

রাজধানীর উত্তরায় চিরকুট লিখে হোসনে আরা বেগম শিলা (৩৬) নামে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তিনি উত্তরা ১২নং সেক্টরের ১৬ নম্বর রোডের ২৫ নম্বর বাসার ৪/এ ফ্ল্যাটের জান্নাতুল আলম ফরাজির স্ত্রী এবং সাভারের ব্যাংক কলোনির আলহাজ্ব হাসান আলীর মেয়ে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ফরাজিকে আটক করেছে পুলিশ। উত্তরা পশ্চিম থানার ১২নং সেক্টরের ১৬ নম্বর রোডের ২৫ নম্বর বাসার ৪/এ ফ্ল্যাট থেকে বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ১১টায় ঝুলন্ত অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের বাবা আলহাজ্ব হাসান আলী অভিযোগ করেন, ৫ বছর আগে তার মেয়ের সাথে ফরাজির বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তারা নিঃসন্তান হওয়ায় ছোটখাটো বিষয় নিয়ে ঝগড়া হতো।

তাছাড়া গালিগালাজসহ মারধরও করতেন তারা। মাঝে মাঝে ফরাজি তার মেয়েকে বলতো, ‘তুই গলায় ফাঁস টানাইয়া মরতে পারিস না! তোর কোনো সন্তানাদি হয় না। তুই মইরা গেলে আমি বাঁচি! ইত্যাদি।

এরপর বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা ঘুরতে দক্ষিণখানে যান। পরে শিলা স্বামীর সাথে অভিমান করে মাস্টার বেডরুমের ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। মেয়ের আত্মহত্যায় প্ররোচনার জন্য তিনি ফরাজিকে দায়ী করেন।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উত্তরা পশ্চিম থানার অপারেশন অফিসার পরিদর্শক শাহ আলম জানান, মৃতের পাশ থেকে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। এতে লেখা ছিল- ‘ফরাজি, তোমাকে মুক্তি দিয়ে গেলাম। তোমার মত শয়তান যেন পৃথিবীতে ২টি জন্ম না নেয়।

আমার মৃত্যুর জন্য তুমিই দায়ী। আমার লাশটি যেন পোস্টমর্টেম না করা হয়। এ ব্যাপারে তিনি আরো বলেন, আত্মহত্যার ঘটনায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। তাছাড়া অভিযুক্ত স্বামী ফরাজিকে আটক করে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই