মেইন ম্যেনু

উত্ত্যক্তকারীদের বিরুদ্ধে মামলা না নেওয়ায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। বেশ কিছু দিন ধরেই পাশের বাড়ির লোকজন তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। সেইসঙ্গে ছিল হুমকিও। এ নিয়ে পরিবারের লোকজন থানায় অভিযোগ করতে যায়। কিন্তু পুলিশ কোনো অভিযোগ গ্রহণ করেনি। কোনো উপায় না দেখে বৃহস্পতিবার নিজের ঘরেই আত্মহত্যা করেছে নদিয়ার ওই মেয়েটি।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির উপকণ্ঠের নদিয়ার ৬৩ সেক্টরের অন্তর্ভুক্ত চাঝার্সি গ্রামের বাসিন্দা ওই মেয়েটি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিল যে, পাশের বাড়ির লোকজন তাকে উত্ত্যক্ত করছে। তাদের সঙ্গে না গেলে তাকে অপহরণ করা হবে বলেও হুমকি দিয়েছে উত্ত্যক্তকারীরা। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় একটি ‘সুইসাইড নোট’ লেখে সে।

এরপর তার ভাই ব্যাগের ভেতরে সুইসাইড নোটটি পায় এবং সে রাতেই স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে এফআইআর করতে যায়। কিন্তু পুলিশ অভিযোগ গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানায়। এ ঘটনার চারদিন পর বৃহস্পতিবার নিজ ঘরে আত্মহত্যা করে মেয়েটি।

নদিয়া পুলিশের তত্ত্বাবধায়ক দিনেশ যাদবের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, তিনি (দিনেশ) স্বীকার করেছেন যে, চারদিন আগে এক ব্যক্তি অভিযোগ করার জন্য এসেছিলেন। তিনি বলেন, ‘স্থানীয় পুলিশের কাছে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। যদি কোনো দুর্বলতা খুঁজে পাওয়া যায় তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’






মন্তব্য চালু নেই