মেইন ম্যেনু

ঋত্বিকের বডিতে শুভর মাথা! ঠিক মতো নকলও করতে পারে না বাংলা সিনেমা

একের পর এক নকলের অভিযোগে জর্জরিত ঢাকাই চলচ্চিত্র। কখনো গল্প চুরি কখনো বা পোস্টার নকলের অভিযোগ যেন খুব সাধারণ ব্যাপার। গতকাল শুক্রবার আরিফিন শুভ ও তিশা অভিনীত অস্তিত্ব চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছে। মুক্তির পরেই পোস্টার নকলের অভিযোগ উঠেছে অনন্য মামুন পরিচালিত এই চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা সমালোচনা। মুক্তির আগেই অস্তিত্ব চলচ্চিত্রের বেশ কিছু পোস্টার প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু সম্প্রতি প্রকাশিত একটি পোস্টার বলিউডের ‘কৃষ’ চলচ্চিত্রের পোস্টার নকল করে তৈরী করা হয়েছে বলে অনেকে অভিযোগ তুলেছে। ‘কৃষ’ চলচ্চিত্রের পোস্টারের হৃতিকের গলা কেটে শুভর মাথা বসানো হয়েছে। পাশাপাশি দুটি পোস্টার রাখলে তা স্পষ্টভাবেই বোঝা যায়।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হয় নির্মাতা অনন্য মামুনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘কাকরাইল পাড়ার মানুষের চাহিদাটা একটু অন্যরকম তা তো জানেন। আসলে আমার ম্যানেজার আমাকে না জানিয়ে এই পোস্টারটা করেছে। এই পোস্টারের সংখ্যা খুবই অল্প। সম্ভবত হাজার দেড়েক হবে। বিষয়টি জানার পর সাথে সাথে বন্ধ করে দিয়েছি। আসলে এত ভালো একটি কাজ করলাম অথচ পোস্টারের জন্য সমালোচিত হতে হলো। এ নিয়ে ম্যানেজারকে বকাঝকাও করেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘মৌলিক গল্প নিয়ে নির্মাণ করেছি চলচ্চিত্রটি। এত ভালো একটি চলচ্চিত্র, মিডিয়া থেকে শুরু করে সবাই খুব সাহায্য করছেন। দর্শক চলচ্চিত্রটি দেখছেনও। আমার মনে হয় না, এই পুরনো একটি পোস্টারের বিষয় নিয়ে এতটা বড় করে বিষয়টি উপস্থাপন করার কোনো যুক্তি আছে। আর মানুষের ভুল হতে পারে। আমি এটাকে ভুল বলে মেনে নিয়েছি।’

অস্তিত্ব চলচ্চিত্রে শুভ-তিশা ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন- নিজুম রুবিনা, সূচরিতা, সুজাতা আজিম, কাবিলা প্রমুখ।

বুদ্ধি প্রতিবন্দী এক কিশোরীর অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার কাহিনি দেখা যাবে এ চলচ্চিত্রে। এর গল্প লিখেছেন কার্লোস সালেহ। চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন কার্লোস সালেহ, অনন্য মামুন ও সোমেশ্বর অলি।

ড্রিমবক্স লিমিটেডের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন কার্লোস সালেহ। সিনেমাটির আন্তর্জাতিক পরিবেশনায় রয়েছে অ্যাকশন কাট লিমিটেড।






মন্তব্য চালু নেই