মেইন ম্যেনু

এইচএফসি গ্যাসের ব্যবহার কমাতে সম্মত ১৯৭ দেশ

বৈশ্বিক জলবায়ু রক্ষায় হাইড্রোফ্লোরোকার্বন (এইচএফসি) গ্যাস কমিয়ে আনতে সম্মত হয়েছে ১৯৭টি দেশ।

শুক্রবার রুয়ান্ডায় জলবায়ুবিষয়ক এক সম্মেলনে দেশগুলোর প্রতিনিধিরা এ বিষয়ে একটি চুক্তি করতে রাজি হয়েছেন।

রুয়ান্ডার রাজধানী কিগালিতে ১৯৭টি দেশের প্রতিনিধিরা মতৈক্যে পৌছতে শুক্রবার রাতভর কাজ করেন। তারা এমন একটি চুক্তি তৈরি করতে সম্মত হন যা উন্নত ও উন্নয়নশীল উভয় দেশের জন্যই সহায়ক হবে।

এইচএফসি গ্যাস মূলত রেফ্রিজারেটর ও এয়ারকন্ডিশনারে ব্যবহৃত হয়। এটি বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির জন্য দায়ী। তাই একে গ্রিনহাউস গ্যাসও বলা হয়।

বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসকে সবচেয়ে বেশি দায়ী মনে করা হয়। তবে এইচএফসি গ্যাসের অণু কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের অণুর চেয়ে সূর্যের তাপ কয়েক হাজার গুণ বেশি আটকে রাখতে পারে।

চুক্তি অনুসারে দরিদ্র দেশগুলোর তুলনায় উন্নত দেশগুলো রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার দ্রুত কমিয়ে আনার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বলেছেন, ‘এইচএফসি গ্যাস আমাদের জলবায়ুর জন্য বিপজ্জনক।’

উল্লেখ্য, উন্নয়নশীল দেশগুলোতে সম্প্রতি এয়ারকন্ডিশনার ব্যবহার বেড়েছে। ফলে বায়ুমণ্ডলে এইচএফসি গ্যাসের পরিমাণ ১০-১৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই