মেইন ম্যেনু

এই খাবার ফ্রিজে রাখা মানেই নষ্ট

আমাদের মতো গরম আবহাওয়ার দেশে খাবার ঠিকভাবে না রাখলেই তা পচে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। আবার অনেকের রেফ্রিজারেটর কিনে ওঠার মতো আর্থিক সঙ্গতি থাকে না। তবে যারা রেফ্রিজারেটর কেনেন, তাদের মধ্যে অনেকেই জানেন না, কোন খাবার জিনিসগুলি ফ্রিজে রাখা উচিত আর কোনগুলি নয়। আর তা না জেনেই অনেক জিনিসই আমরা ফ্রিজে ঢুকিয়ে দিই যা কখনও করা উচিত নয়।
নিম্নে দেখে নিন, কোন কোন খাবার জিনিস একবার ফ্রিজে ঢুকিয়ে দেওয়া মানেই তা নষ্ট হয়ে যায়।

কফিঃ

কফির প্যাকেট বা কৌটো ফ্রিজে রাখলে তা জমে গিয়ে স্বাদ চলে যায় ও গন্ধ বদলে যায়।

জ্যামঃ

অনেক সময়ে আমরা জ্যাম বা জেলিকে ফ্রিজে রাখি। তবে তা করলে এর মধ্যে থাকা প্রিজারভেটিবস দানা বেঁধে যায়। তাই তা কখনও করা উচিত নয়।

পেঁয়াজঃ

বহুদিন ভালো রাখতে চাইলে পেপারের ব্যাগে ভালো করে মুড়িয়ে রাখলেই তা তাজা থাকে। তার জন্য ফ্রিজের কোনও প্রয়োজন নেই। এছাড়া আলু ও পেঁয়াজ কখনও একসঙ্গে রাখতে নেই।

টমেটোঃ

টমেটো ফ্রিজে রাখলে তা শক্ত হয়ে যায় ও স্বাদ চলে যায়। তবে টমেটো পাকাতে চাইলে কাগজে মুড়িয়ে তা ফ্রিজে রাখা যেতে পারে।

আলুঃ

ফ্রিজে রাখা মানেই আলুর স্বাদ বদল হয়ে যাবে। তাই শুকনো জায়গায় আলু রাখলে তা দীর্ঘদিন ভালো থাকে।

তেলঃ

কখনও তেল ফ্রিজে রাখা উচিত নয়। ঘরোয়া তাপমাত্রায় তেল রাখলেই তা বহুদিন ভালো থাকে।

আচারঃ

আচারকে ফ্রিজে না রেখে জানলার পাশে যেখানে সূর্যের আলো পড়ে সেখানে রাখলে তা দীর্ঘদিন ভালো থাকে।

পাউরুটিঃ

ফ্রিজে রাখলে পাউরুটির মধ্যে থাকা ভিজে ভাব শুকিয়ে যায়। তাই তা কখনও করা উচিত নয়।

রসুনঃ

ফ্রিজে রাখলেই স্বাদ ও গন্ধ চলে যায় রসুনের। একইসঙ্গে তা তাড়াতাড়ি পচেও যায়।

বেলপেপারঃ

ফ্রিজে রাখলে খুব তাড়াতাড়ি পচে যায় বেলপেপারের মতো সবজি। তাই তা কখনওই করা উচিত না






মন্তব্য চালু নেই