মেইন ম্যেনু

এই প্রথম ৭১-এ অপরাধের কথা অকপটে স্বীকার

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা অকপটে স্বীকার করে নিলেন বুধবার গ্রেফতার হওয়া নেত্রকোণার দুই আসামি আব্দুর রহমান (৭৫) ও আহমদ আলী (৭৮)।

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িতদের বিচারের মুখোমুখি হওয়া আসামিদের মধ্যে ২০ মামলায় ২২ আসামির বিরুদ্ধে রায় হয়ে যাওয়া এ পর্যন্ত কেউই নিজেদের অপরাধ স্বীকার করেনি।

বৃহস্পতিবার ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনালে এই নতুন আসামিদের হাজির করা হলে তারা নিজেদের দোষ স্বীকার করে নেন।

চেয়ারম্যান বিচারপতির প্রশ্নোত্তরে আসামিরা বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা একাত্তরে শান্তি কমিটির সদস্য ছিলাম। আমরা মাটি কেটেছি। গুলি বহন করে নিয়ে যাওয়ার কাজ করেছি। এসব কাজে আমরা যুক্ত ছিলাম।’

পরে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আসামিদের পক্ষে কোনও আইনজীবী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চান। কিন্তু আসামিদের পক্ষে কোনও আইনজীবী না থাকায় তাদেরকে আইনজীবী নিয়োগের আদেশ দিয়ে ট্রাইব্যুনাল ওই আসামিদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে আগামী ১ অক্টোবর পরবর্তী আদেশ দেওয়া হবে বলে দিন নির্ধারণ করেন ট্রাইব্যুনাল।

উল্লেখ্য, বুধবার নেত্রকোনা জেলা থেকে মানবতাবিরোধী অপরাধের দুটি অভিযোগে পরোয়ানাভুক্ত এই দুই আসামি আবদুর রহমান ও আহমদ আলীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার সকালে তাদেরকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হলে প্রসিকিউশনের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন ট্রাইব্যুনাল-১।






মন্তব্য চালু নেই