মেইন ম্যেনু

এই হোটেলে মাত্র ১০ টাকায় ভরপেট খাওয়া যায়

এক কাপ চা কিনতে গেলেও এখন ১০ টাকা লাগে। একটু ঝকমকে রেস্তোরাঁ হলে তো কথাই নেই। এক কাপ কফি কিনতে খরচ হয়ে যায় ১২০-১৩০ টাকা। এমন ভয়ানক দুর্মূল্যের বাজারে কেউ যদি আপনাকে বলে ১০ টাকায় ভরপেট খাওয়ার খেতে পারবেন তা হলে? অবাক করার মতো ঘটনা হলেও সত্যি এটাই।

ভারতের কনার্টক রাজ্যের ম্যাঙ্গালোরের সুলিয়া টাউনে এমন একটি হোটেল রয়েছে যেখানে এখনও মাত্র ১০ টাকায় ভাত, ডাল, সাম্বার, রসম, ২ রকমের তরকারি, রায়তা এ সব পাওয়া যায়। যদি মনে করেন, খাবারের মান খারাপ হবে, সেটাও ভুল ভাববেন। তবে এটা নতুন নয়।

হোটেল শুরু করার সময় থেকেই কম দামে ভালো খাবার পরিবেশন করার ঐতিহ্য বহন করে আসছে হোটেল রামপ্রসাদ। ১৯৩৮ সালে কেরালা থেকে কর্নাটকে এসে ভেঙ্কটেশ সরলায়া এই হোটেল প্রতিষ্ঠা করেন। সে সময় ২৫ পয়সায় এই পরিমান খাবার পাওয়া যেত। ধীরে ধীরে দাম বাড়াতে বাড়তে ২০১৪ সালে সেই দাম ঠেকে ৫ টাকায়। এখন তা দাঁড়িয়েছে ১০ টাকায়।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দাম বাড়লেও তা বর্তমান বাজার মূল্যের তুলনায় এতটাই কম, যে অনেকে সত্যিই বিশ্বাস করতে পারেন না এই দামে ভালো খাবার পাওয়া যায়। ভেঙ্কটেশের ছেলে সুন্দরা সরলায়া গত ৪৬ বছর ধরে হোটেল চালাচ্ছেন।

রোজ অন্তত ২০০ মানুষের মুখে এই দামে তিনি কী ভাবে খাবার তুলে দেন এ কথা তাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘দাম ঠিকই রয়েছে। আমি চড়া লাভে ব্যবসা করি না। তাই যতটা পারি কম দামে ভালো মানের খাবার দেওয়া চেষ্টা করি। এই বাজারে অনেকেই ভরপেট খাবার খেতে অনেক টাকা খবর করে ফেলেন। বিশেষত ছাত্রছাত্রীরা। তাই বাবা কম দামে তাদের খাবার পরিবেশন করতেন। আমি সেই একই ঐতিহ্য ধরে রেখেছি।’ – ইন্ডিয়া টাইমস






মন্তব্য চালু নেই