মেইন ম্যেনু

এই ৬টি লাল ফল আপনি খাচ্ছেন তো?

প্রচলিত আছে-“ প্রতিদিন একটি আপেল ডাক্তারকে রেখে দূরে”। শুধু আপেল নয়, লাল কিছু ফল আছে যা আপনাকে অনেকগুলো রোগ থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। লাল ফলগুলোতে লাইকোপেন এবং অ্যানথোসানিন নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে যা ফলগুলোকে লাল করে থাকে। আর এই অ্যান্টি অক্সিডেন্টসমূহ হৃদরোগের ঝুঁকি কমিয়ে ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। আসুন এমন কিছ লাল ফলের স্বাস্থ্য উপকারিতা জেনে নিই।

১। আপেল

লাল ফলগুলোর মধ্যে আপেল অন্যতম। এর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ফ্ল্যাভোনয়েড এবং ফাইবার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। এরসাথে ফুসফুস, কোলন, স্তন এবং লিভার ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। এমনকি শরীরের কোলেস্টেরল মাত্রা কমিয়ে ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে।

২। টমেটো

Tufts University এর বৈজ্ঞানিকরা এক গবেষণায় দেখছেন যে লাইকোপেইন সমৃদ্ধ খাবার বিশেষত টমেটো সপ্তাহে ৫ বার বা তারচেয়ে বেশি পরিমাণে খেলে শতকরা ২৬ ভাগ করোনারি রোগের সম্ভাবনা কমে যায়। টমেটো রান্না করে খাওয়া বেশি ভাল। Gerard E. Mullin, M.D., of Johns Hopkins Hospital in Baltimore এর মত অনুসারে “তাপ লাইকোপেইনকে আরও ভালভাবে মিশিয়ে যেতে সাহায্য করে”।

৩। ডালিম

ডালিমে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড, পলিফেনল এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে যা হৃদরোগ, বাত, ইরেক্টিল ডিসফাংসন এবং ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। ডালিম রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে থাকে।

৪। চেরী

চেরীতে অ্যানথোসিয়ানিন নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকে যা বাত ব্যথা, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে। এছাড়া এতে পটাশিয়াম, এবং ভিটামিন এ আছে যা স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী।

৫। বিট

বিট শরীরের শতকরা ১৯ ভাগ ফোলেটের চাহিদা পূরণ করে থাকে। এছাড়া এতে ভিটামিন বি থাকে যা নতুন কোষ তৈরি করে থাকে। বিটানিন শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে।

৬। লাল ক্যাপসিকাম

গবেষণায় দেখা গেছে ক্যাপসিকাম শরীরের মেটাবলিক হার বৃদ্ধি করে এবং মস্তিষ্কে রাসায়নিক উপাদান পৌঁছয়ে যা ক্ষুধা কম অনুভূত করে। ২০০৫ সালে the International Journal of Obesity জরিপে দেখা দিয়েছে, যারা টমেটো এবং লাল ক্যাপসিকাম মিশ্রিত জুস নিয়মিত পান করেন, তারা শতকরা ১৬ ভাগ ক্যালরি কম গ্রহণ করে থাকেন খাবার থেকে। খাবার গ্রহণের আধঘণ্টা আগে এক গ্লাস টমেটো এবং লাল ক্যামসিকাম জুস পান করুন।

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় একটি হলেও লাল ফল রাখুন। এটি আপনার অনেকগুলো স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান করে দেবে।






মন্তব্য চালু নেই