মেইন ম্যেনু

এই ৬ ফোনের যে ক্যামেরা তাতে DSLR কে হার মানিয়েছে

প্রযুক্তির উন্নয়েনর সঙ্গে সঙ্গে সমস্ত গ্যাজেটও পাল্লা দিয়ে পাল্টাচ্ছে। ক্যামেরার ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। অ্যানালগ থেকে ডিজিটাল, হটশট ফিল্মের ক্যামেরা থেকে হাল আমলের DSLR. তেমন ভাবেই মোবাইল ফোনের ক্ষেত্রেও কথাটি সমানভাবে খাটে।

আগে ফোন শুধুমাত্র কথা বলা এবং মেসেজের জন্য ব্যবহৃত হত। এখন তার হাজারো ব্যবহার। তার মধ্যে অন্যতম অবশ্যই ছবি তোলা। শুধুমাত্র সেলফির জন্য নয়, যাঁরা ফটোগ্রাফি নিয়ে বেশ প্যাশনেট তাঁদের কাছে ক্যামেরার পরিপূরক হিসাবে অনায়াসে জায়গা করে নিতে পারে এই ফোনগুলি। তালিকায় আছে বেশ কয়েকটি।

১) স্যামাঙ গ্যালাক্সি S7 এবং S7 এজ: ১.৭ অ্যাপার্চারে ছবি তুলতে পারে। তার সঙ্গে ডুয়াল পিক্সেল অটোফোকাস, এখ কথায় দুরন্ত কম্বো। কম আলোয় অসাধারণ ছবি তুলবে। দিনের আলোতে তো কথাই নেই।

২) অ্যাপল আইফোন 7 এবং 7 Plus: ফুল HD ভিডিয়ো তুলতে পারে। কম আলোয় খুব ভালো ছবি ওঠে। এটা অ্যাপলের নিজস্ব সফ্টওয়্যার এবং প্রযুক্তির কামাল। সহ্গে অবশ্যই ডুয়াল লেন্স প্রযুক্তির কথা বলতে হয়।

৩) গুগল পিক্সেল XL: এই ফোনের ক্যামেরা অ্যাপলের চেয়ে কোনও অংশে কম কিছু নয়। 4K ভিডিয়ো তুলতে পারে। অত্যন্ত কম আলোয় পরিষ্কার ছবি তুলতে পারে।

৪) OnePlus 3: অ্যাপার্চার খুব বড়। কম আলোয় ভালো ছবি তুলতে পারে। তার সঙ্গে HDR মোড এবং ইমেজ স্টেবিলাইজেশন অপশনের জন্য ক্লিয়ার ভিডিয়ো তোলা যাবে।

৫) MOTO Z: 1.8 অ্যাপার্চার। কম আলোয় খুব ভালো ছবি উঠবে। ফুল HD ভিডিয়ো তোলা যাবে। এই ফোনটির একটি বিশেষ সুবিধা হল এর মোটো মড নামে বিভিন্ন অ্যাটাচমেন্ট লাগিয়ে ক্যামেরার শক্তি কয়েকগুণ বাড়িয়ে নেওয়া যায়। অবশ্যই এর জন্য অতিরিক্ত পকেট খসাতে হবে।

৬) সোনি এক্সপেরিয়া XZ: ছবি ভালোই তোলে। কিন্তু কম আলোয় ঝকঝকে পরিষ্কার হবে না। তবে এর ভিডিও অসাধারণ। অটো স্টেবিলাইজড 4K ভিডিও। লেজার অটোফোকাস, ফেজ ডিটেকশন, কনট্রাস্ট ডিটেকশন ইত্যাদি অপশনের জন্য দারুণ ভিডিও তুলতে পারে।-এই সময়






মন্তব্য চালু নেই