মেইন ম্যেনু

‘একজন দৌড়াইয়া আইসা আম্মুকে চাকু ঢুকাই দিসিল’

‘ওই যে গুণ্ডা, আম্মুকে মারসে। ওরা হোন্ডা করে ওখানে দাঁড়ায়সিল। ওখানে তিনজন ছিল। তারপর একজন দৌড়ায়ে আইসা আম্মুকে নিচে ফালাই দিয়ে চাকু ঢুকাই দিসিল। আরেকজন গুলি মেরে মেরে ফেলসে। তারপর আম্মুর মুখের থেকে রক্ত বের হচ্ছিল।’

এভাবেই মায়ের হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিয়েছে ঢাকার পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তার ও গৃহিণী মাহমুদা খানম মিতু দম্পতির ছেলে আক্তার মাহমুদ মাহির (৭)। সে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

আজ রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে চট্টগ্রামের জিইসি মোড় এলাকায় ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাচ্ছিলেন মিতু। পথে মোটরসাইকেলে করে তিন দুর্বৃত্ত তাঁকে ছুরিকাঘাত ও গুলি করে হত্যা করে।

মিতু তাঁর দুই সন্তানকে নিয়ে জিইসি মোড় এলাকার একটি বাসায় থাকতেন। তাঁর স্বামী বাবুল আক্তার তিন দিন আগে বদলি হয়ে ঢাকায় এসপি হিসেবে যোগদান করেন।

এর আগে বাবুল আক্তার চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।






মন্তব্য চালু নেই