মেইন ম্যেনু

একটি ছবির দাম ১ হাজার কোটি টাকা!

শহরে কিংবা গ্রামাঞ্চলের মেলাগুলোতে ঘুরতে গেলেই দেখা যায় বিভিন্ন ধরনের তৈজসপত্র এবং হরেক রকমের ক্যালেন্ডার ও ছবি। সবারই মন কাড়ে সুন্দর সুন্দর বাঁধানো ছবিগুলো !

দাম আর কত হবে! একেবারেই সস্তা! ক্রয় করে ঘর বা বাসার দেয়ালে ঝুলিয়ে রাখলে শোভা পাবে নিমিষেই । তবে সামান্য এক ছবির দাম যদি হয় এক হাজার কোটি টাকা তাহলে কিইবা আর বলার থাকে !

হ্যাঁ, ফ্রান্সিস বেকনের ‘থ্রি স্টাডিজ অব লুসিয়ান ফ্রয়েড’ নামের তিন ভাগের এই ছবিটির মূল্য প্রায় এক হাজার কোটি টাকারও বেশি! ছবিটি নিউইয়র্কে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রথমবারের মতো নিলামে তোলে অ্যাকুয়াভিয়া গ্যালারিজ।

আনুষ্ঠানিকভাবে নিলাম শুরুর মাত্র ছয় মিনিটের মাথায় ছবিটি বিক্রি হয়ে যায় ১৪২ দশমিক চার মিলিয়ন ডলারে। বাংলাদেশি টাকায় যার দাম দাঁড়িয়েছে এক হাজার একশ ছয় কোটি টাকা।

ম্যানহাটনে অনুষ্ঠিত এই নিলামে ছবিটির প্রাথমিক মূল্য হাঁকা হয়েছিল ৮৫ মিলিয়ন ডলার। এরপর ১৪২ দশমিক চার মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ এক হাজার একশ কোটি টাকারও বেশি দামে বিক্রি হয়ে ছবিটি সর্বকালের সবচাইতে দামি পেইন্টিং হিসেবে স্থান করে নেয়।

এর আগে ২০১২ সালে অ্যাডওয়ার্ড মাঞ্চের ‘দ্য স্ক্রিম’ ১১৯ দশমিক নয় মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ প্রায় নয়শ কোটি টাকায় বিক্রি হয়ে সবচাইতে দামি ছবি হিসেবে রেকর্ড গড়েছিল। বরাবরের মতোই এবারও ক্রেতার নাম গোপন রেখেছে ছবিটি নিলামে ওঠানো প্রতিষ্ঠানটি।






মন্তব্য চালু নেই