মেইন ম্যেনু

একটি জাহাজের মালিক ১৩ দেশ! অবশেষে করুণ পরিণতি

একটি মাছ ধরার জাহাজের মালিকানা দাবি করেছে বিশ্বের ১৩ টি দেশ। ফলে ভাইকিং নামের জাহাজটির প্রকৃত মালিকানা সম্পর্কে স্পষ্ট কোনো ধারণা পাওয়া যায় না।

এই ‘ভূতুড়ে’ জাহাজটি বারবার নাম ও পতাকা পরিবর্তন করে বছরের পর বছর ধরে সমুদ্রে অবৈধ মাছ শিকারের কাজে ব্যবহার করা হয়। রাডারে অবস্থান চিহ্নিত হওয়া থেকে বাঁচার জন্য জাহাজটিতে সিগনাল পাঠানোরও কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়নি।

গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনী একটি হেলিকপ্টার ও রণতরী নিয়ে রিয়াউ দ্বীপ প্রদেশের জলসীমায় জাহাজটিতে হানা দিয়ে অবৈধ মাছ শিকারে লিপ্ত ১১ জন ক্রুসহ আটক করে। এসময় জাহাজটিতে নাইজেরিয়ার পতাকা লাগানো ছিল।

প্রায় ১৩ টি দেশের পক্ষ থেকে মালিকানা দাবি করা জাহাজটি ইন্দোনেশিয়ার জলসীমায় প্রবেশ করলে সি সেপার্ড নামের একটি অলাভজনক সাগর সংরক্ষক সংস্থা দেশটির কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে।

ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনী জাহাজটি পশ্চিম জাভার দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলের পানগানডারান সমুদ্র সৈকতের নিকট সাগরে ধ্বংস করে দেয়। জাহাজটি ধ্বংস করার ভিডিও ড্রোন ক্যামেরা দ্বারা ধারণ করা হয়। -এপি






মন্তব্য চালু নেই