মেইন ম্যেনু

একটি পরিপূর্ণ ঘুম বাড়াবে আপনার স্মৃতিশক্তি

সুস্থ থাকতে শক্তিশালী ভূমিকা রাখে স্বাস্থ্যকর ঘুম। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমনকি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতেও কাজ করে ঘুম।

গোটা দিনে যে অভিজ্ঞতা লাভ করে মানুষ, ঘুমের সময় এ-সংক্রান্ত নানা তথ্য এবং স্মৃতি সুষ্ঠুভাবে সংরক্ষণ করে মস্তিষ্ক। গবেষণায় দেখা যায়, সারা দিনে মস্তিষ্কে যে কাজগুলো করে রাতে ঘুমের সময় ঠিক সেই কাজগুলোই ফাস্ট ফরোয়ার্ডের মতো দ্রুত গতিতে ঘটতে থাকে।

এতে দেহে ক্রিয়াশীল মাইক্রোস্কোপিক স্নায়বিক কোষগুলোকে শক্তিশালী করে ঘুম। এই কোষগুলো স্মৃতি ধরে রাখার জটিল ও কুটিল কাজগুলো সম্পন্ন করতে ভূমিকা রাখে। ঘুমের সময় মস্তিষ্কের এসব কার্যক্রম মৌলিক বৈশিষ্ট্যের মধ্যে পড়ে। রাতের স্বাস্থ্যকর ঘুম তাই খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অস্বাস্থ্যকর এবং অনিয়মিত ঘুমের কারণে সিজোফ্রেনিয়া এবং আলঝেইমারের মতো সমস্যা দেখা দেয়। আবার মস্তিষ্কের এসব সুষ্ঠু কার্যক্রমের ফলে মানুষের আবেগ নিয়ন্ত্রণে থাকে। নুতন শেখার সময় বেশ সুবিধা মেলে তখন। ফলে মানুষ দ্রুত শিখতে পারে এবং তা স্মৃতিতে গেঁথে যায়। এ ধরনের কাজ মস্তিষ্কের হিপোক্যাম্পাস অংশে ঘটে থাকে।

একে স্মৃতির কেন্দ্র বলে ধরা হয়। ভালো ঘুমের মাধ্যমে হিপোক্যাম্পাস অংশের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত হয়।






মন্তব্য চালু নেই