মেইন ম্যেনু

একদলীয় শাসন না হলে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড হতো না : মওদুদ

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে একদলীয় শাসন বা বাকশাল বাকশাল গঠন না হলে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড ঘটতো না।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে অর্থনীতিবিদ রেহমান সোবহানের বই ‘আনট্রাঙ্কুইল রিকাকেশনস, দ্য ইয়ারস অব ফুলফিলমেন্ট’- এর ওপর এক সংলাপ অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ এ কথা বলেন।

‘দ্য স্ট্রাগল ফর বাংলাদেশ’ শীর্ষক এ সংলাপের আয়োজন করে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)।

মওদুদ আহমদ বলেন, একদলীয় শাসন (ওয়ান পার্টি রুল) জারি না হলে ওই সময় গণতন্ত্র বিশৃঙ্খল হতো না। ঘাতকরাও বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সুযোগ পেত না।

রেহমান সোবহানের রচিত বইয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, এই বইতে আমরা স্বাধীনতার আগেকার সময়ের রাজনৈতিক গতি-প্রকৃতির উপাদানগুলো পেয়েছি।

এ সময় তিনি ব্যক্তি রেহমান সোবহান সম্পর্কে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের সময়ে আপনার (রেহমান সোবহান) ভূমিকা আমরা জানি এবং তা আপনি এই বইয়ে লিখেছেন। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী সময়েও দেশ গঠনে আপনার ভূমিকা আছে, এ বিষয়ে আপনার লেখনি চাই।

তিনি বলেন, আপনি দেশের প্রথম পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য। স্বাধীনতার পর সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য আপনারা প্রথম পঞ্চবার্ষিকী তৈরি করলেন। দেশের ৯০ শতাংশ কলকারখানা রাষ্ট্রীয় মালিকানায় করা হলো। আমি মনে করি, বঙ্গবন্ধুকে বোঝানো হলো গণতন্ত্রের মাধ্যমে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা যায় না। তাই ওয়ান পার্টি দরকার।

আমরা আশা করি, আপনার পরবর্তী বইয়ে উল্লেখ থাকবে- স্বাধীনতার পর কীভাবে ওয়ান পার্টি আসলো। এ বিষয়ে আপনি আমাদের জানাবেন। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড ঘটতো না, যদি ওয়ান পার্টি না হতো।

সংলাপ অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনা করেন সিপিডির সিনিয়র ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য্য। সংলাপে দেশের বিভিন্ন স্তরের বৃদ্ধিজীবী, রাজনীতিবিদ ও অর্থনীতিবিদরা অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে সিপিডির চেয়্যারম্যান অর্থনীতিবিদ রেহমান সোবহান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর পরাষ্ট্রবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গহর রেজভী, সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ড. মোস্তাফিজুর রহমান, ফেলো প্রফেসর রওনক জাহান, অর্থনীতিবিদ ড. আকবর আলী খান, ড. কামাল হোসেন, বাসদ নেতা খলিকুজ্জামান, রাশেদা কে চৌধুরী, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, অধ্যাপক এসএম আকাশ, হাঙ্গার প্রজেক্টের বাংলাদেশি কান্ট্রি ডিরেক্টর বদরুল আলম মজুমদার প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই