মেইন ম্যেনু

একাকী ভ্রমণে অনন্য ৭ অনুভূতি

সবাই মিলে ঘুরতে যাওয়া যেমন আনন্দের তেমনি একা ভ্রমণে গেলেও অনেক ধরণের নতুন নতুন অভিজ্ঞতা সঞ্চার করা যায়। একা ভ্রমণে নতুন নতুন বন্ধু পাওয়া যায়, নতুন কিছু শেখা যায় ও বিভিন্ন সংস্কৃতির সাথে পরিচিত হওয়া যায়। যারা একা ভ্রমণ করতে পছন্দ করেন, তারা বিভিন্ন অনুভূতি উপভোগ করতে পারে। আসুন জেনে নেয়া যাক তাদের সেই অনন্য অনুভূতি-

১. তারা ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে তাদের পরিচয় দিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন। বিভিন্ন স্থানে যাবার পর তাদের প্রথম কাজ হল নিজেকে সকলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া।

২. তাদের নতুন সঙ্গী হল গুগল ম্যাপ। এটা শুধু আপনাকে পথ দেখাতেই সাহায্য করে না, সাথে সাথে আপনার যখন যা প্রয়োজন তা খুঁজে বের করতেও সাহায্য করে। তাই যারা সবসময় ভ্রমণ করেন, তাদের সবচেয়ে ভাল সঙ্গী হল গুগলের মানচিত্র।

৩. বাসার সবাই তাদের পাগল মনে করেন বা কোন গুপ্তচর মনে করেন। আপনি সকলের জন্য একটি ভৌতিক গল্প হিসেবে পরিচিতি পাবেন। কারণ, আপনি কখন কোথায় যাচ্ছেন, এর কোন নিশ্চয়তা নেই।

৪. বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণের ফলে আপনার সাহসের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। আপনি যে কোন স্থানে নির্ভয়ে যেতে পারবেন। এতে আপনার স্বাধীনচেতা মন আরও বেশী প্রস্ফুটিত হবে।

৫. বন্ধু-বান্ধব ও পরিবারের সাথে যোগাযোগের জন্য সামাজিক মাধ্যম তাদের প্রধান পথ। যারা ভ্রমণে বেশী সময় অতিবাহিত করেন, তারা সামাজিক মাধ্যমেও বেশী সময় থাকেন।

৬. ভ্রমণপ্রিয় মানুষের ব্যাগ গুছাতে বেশী সময় অতিবাহিত হয় না। তারা কিছু সময়ের মধ্যে প্রস্তুত হয়ে চান। কি নিতে হবে, আর কি নেয়ার প্রয়োজন নেই তারা সে বিষয়ে খুব ভালভাবে অবগত।

৭. তাদের সেলফি তোলার সমাপ্তি দেখা যায় না। সারাক্ষণ বিভিন্ন নতুন নতুন স্থানে তারা সেলফি তুলে অভ্যস্ত। তাদের এসকল সেলফি অনেক সময় তাদের বন্ধুদের ঈর্ষার কারণে রুপান্তরিত হয়।–সূত্র: মেট্রো।






মন্তব্য চালু নেই