মেইন ম্যেনু

একাত্তরের খুনিরাই বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে : ইনু

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত খুনিরাই পঁচাত্তরে সুপরিকল্পিতভাবে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। তারা জানতো বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। এই বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলছিল, তাই তাকে না সরালে কোনোভাবেই বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা দমিয়ে রাখা যাবে না। কিন্তু তাদের এ খায়েশ কখনো পূর্ণ হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মেধা আর যোগ্য নেতৃত্বের কাছে খুনিরা পরাস্ত। বিশ্বের বুকে বাংলাদেশ আজ রোল মডেল।

রোববার সচিবালয়ে বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে সচিবালয় ক্লিনিকের সামনে এ চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে তথ্য অধিদফতর।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, একাত্তরের খুনিরাই রাজনৈতিক উদ্দেশে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছিল। এটা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। স্বাধীনতার পর দেশে রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং গণতান্ত্রিক পরিবর্তনের যে ধারার শুরু হয়েছিল এ হত্যাকাণ্ডের মধ্যদিয়ে সেটিকে পরিবর্তন করে খুনিরা মনগড়া পদ্ধতিতে রাষ্ট্র পরিচালনা করতে চেয়েছিল। এই হত্যাকাণ্ড জঘণ্য এবং নির্মম।

পঁচাত্তরের খুনিরা জিয়া ও মোশতাকের অনুসারী দাবি করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জিয়া ও মোশতাক দেশে চারটি তত্ত্ব দিয়ে গেছে। সেই চারটি হলো সামরিক তত্ত্ব, সাম্প্রদায়িতকতা তত্ত্ব, বিএনপি-জামায়াত বৃষবৃক্ষ তত্ত্ব ও রাজাকার তত্ত্ব।

তিনি বলেন, জিয়া ও মোশতাকের দেয়া সামরিকতন্ত্র, রাজাকারতন্ত্র, বিষবৃক্ষ বিএনপি ও জামায়াত এবং সাম্প্রদায়িকতার অভিশাপ থেকে দেশ ও জাতিকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সে চেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছি।






মন্তব্য চালু নেই