মেইন ম্যেনু

একাদশ থেকে বাদ পড়ছেন সৌম্য!

বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা বুধবার সকালেই আরো একটি দুঃসংবাদ পেয়েছেন, পেসার তাসকিন আহমেদের নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে আইসিসি। তাই চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নামার আগে আরেকটি ধাক্কা খেল বাংলাদেশ দল। এসব ধাক্কা সামলেই ব্যাঙ্গালুরুতে ভারতের মোকাবিলায় নামতে হচ্ছে মাশরাফিদের।

এখন পরিষ্কার হয়ে গেল, এই বিশ্বকাপে তাসকিনের আর ফেরার সম্ভাবনা নেই। তাই আজ ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশে কে থাকছেন, তার হিসাব-নিকাশ এখন শুরু হয়ে গেছে।

তবে আগে থেকেই শোনা যাচ্ছে, এই ম্যাচে বাংলাদেশকে আটকাতে স্পিনের ফাঁদ পেতেছে স্বাগতিকরা। অবশ্য চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের উইকেট কিছুটা স্পিন-সহায়কও। তা ছাড়া যে উইকেটে আজ বাংলাদেশ-ভারত মুখোমুখি হবে, শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ এই উইকেটে খেলেছিল। তাই আগে থেকেই অনেকটা অনুমেয়, এই উইকেটে স্পিনাররা সুবিধা পাবেন।

বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, ভারতের লম্বা ব্যাটিং লাইনকে আটকাতে এই ম্যাচের বোলিংয়ে স্পিনারদেরই প্রাধান্য দেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে তিন পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান ও আল-আমিন হোসেনের পাশাপাশি স্পিনে সাকলাইন সজীব থাকছেন।

তবে আগের ম্যাচে পেটের পীড়ার কারণে খেলতে না পারা ওপেনার তামিম ইকবাল এই ম্যাচে ফিরছেন, তা অনেকটাই নিশ্চিত। তিনি এখন শারীরিকভাবে অনেকটাই সুস্থ। তাই ওপেনিংয়ে এদিন তাঁর সঙ্গী কে হবেন, তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মোহাম্মদ মিথুন রানে ফেরায় এদিন তামিমের সঙ্গে মিথুনকেও নামানো হতে পারে। কারণ, অস্ট্রেলিয়ার দুর্দান্ত পেস আক্রমণের বিপক্ষে মিথুন ভালোই খেলেছিলেন। তাই হয়তো জায়গা ছেড়ে দিতে হতে পারে টানা ফর্ম-খরায় থাকা সৌম্য সরকারকে।

সৌম্য সরকারকে বাদ দিলে সে ক্ষেত্রে স্পিন অলরাউন্ডার শুভাগত হোমকে দলে রাখা হতেও পারে। বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, এ দুজনের একজনকে বাদ দেওয়া হতে পারে একাদশ থেকে।

তবে এই ম্যাচেও আলোচনায় এসেছে অলরাউন্ডার নাসির হোসেনের নাম। শুভাগতকে বাদ দিয়ে নাসিরকেও একাদশে নেওয়া হতে পারে। তবে নিশ্চিত একাদশ পেতে অপেক্ষা করতে হবে ম্যাচের আগ পর্যন্ত।

ভারতের বিপক্ষে সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ : মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিথুন, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, সাকলাইন সজীব, শুভাগত হোম, মুস্তাফিজুর রহমান ও আল-আমিন হোসেন।






মন্তব্য চালু নেই