মেইন ম্যেনু

এক কামড়ে বিমান থেকে গোরস্থান

পর্তুগালের লিসবন থেকে আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনের দিকে যাচ্ছিল একটি বিমান। ওই বিমানেই ওঠার আগে সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে একযাত্রী আরেক যাত্রীকে কামড়ে দেয়। কামড়ানোর পর বিমান চলমান অবস্থাতেই মারা যান হামলাকারী ব্রাজিলীয় তরুণ। আর গত রোববারের এই ঘটনা নিয়ে ব্যাপক ঝামেলায় রয়েছে পর্তুগাল ও আইরিশ বিমান কর্তৃপক্ষ।

বিমান কর্তৃপক্ষের বক্তব্য অনুযায়ী, বিমানের মধ্যে ওই তরুণ অন্য এক যাত্রীকে কামড়ালে তাকে ক্ষ্যান্ত করার চেষ্টা করে বিমানের ক্রুরা। অনেক চেষ্টা করে তরুণটিকে আটকানোর চেষ্টা করলে একটা সময় সেই তরুণ জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এরপর অনেক চেষ্টা করেও তার জ্ঞান ফেরানো যায়নি। এরপর বিমানটির পাইলট চিকিৎসা বিষয়ক জরুরি অবস্থা জারি করে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আইরিশ শহর কর্কের বিমানবন্দরে অবতারণ করেন।

বিমানের চিকিৎসক জ্ঞান ফেরাতে ব্যর্থ হওয়ার পর ভাবা হয়েছিল অবতারণের পর আসা ডাক্তারের চিকিৎসায় কাজ হবে। কিন্তু অন্য ডাক্তার চেষ্টা করেও জ্ঞান ফেরাতে পারেনি ওই ব্রাজিলীয় তরুণের। এক পর্যায়ে তাকে মৃত ঘোষণা করে দায়িথ্বরত চিকিৎসক। কিন্তু ঠিক কি কারণে ওই তরুণের মৃত্যু হয়েছে তার কারণ স্পষ্ট নয়।






মন্তব্য চালু নেই