মেইন ম্যেনু

এক মাছের দাম ৯০ হাজার টাকা

হবিগঞ্জে বসেছে ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা। সদর উপজেলার পইল গ্রামে পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে প্রায় ২শ বছর ধরে এ মেলার আয়োজন করছে গ্রামবাসী। এ মেলার প্রধান আকর্ষণ হচ্ছে মাছ।

এ বছর মেলায় সর্বোচ্চ ৪৫ কেজি ওজনের একটি বাঘাই মাছের দাম হাঁকা হয়েছে ৯০ হাজার টাকা। শুক্রবার থেকে ৩ দিনব্যাপী মেলা শুরু হয়েছে। আজ রোববার পর্যন্ত মেলা চলবে।

মেলায় জেলার গণ্ডি পেরিয়ে মৌলভীবাজার, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ আশপাশের জেলা থেকে কয়েক হাজার মানুষ এসে জড়ো হন। যেন এক মিলনমেলায় পরিণত হয়। উৎসবের আমেজ দেখা দেয় গ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে।

স্থানীয়রা জানান, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম বাগ্মী নেতা বিপিন পালের জন্মভূমি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল গ্রাম। এ গ্রামে প্রায় দুইশ বছর ধরে প্রতি বছর পহেলা মাঘ বসে মেলা। এখানে বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যবসায়ীরা বিশালাকৃতির মাছ নিয়ে আসেন। তাই এ মেলা মাছের মেলা নামেই পরিচিতি পেয়েছে।

মেলা উপলক্ষে এ গ্রামে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। প্রতিটি বাড়িতে স্বজন, সুহৃদদের নিমন্ত্রণ দেয়া হয়। এ বছর মেলায় সবচেয়ে বড় বাঘাই মাছটি নিয়ে আসেন উমেদনগর গ্রামের সমরাজ মিয়া। ৪৫ কেজি ওজনের এ মাছটির দাম হাঁকেন তিনি ৯০ হাজার টাকা।

তিনি জানান, মেঘনা নদী থেকে মাছটি ধরেছেন। শনিবার বিকেলে মাছটি নিয়ে তিনি মেলা প্রাঙ্গণে হাজির হন। রাত পর্যন্ত মাছটির দাম উঠে ৫০ হাজার টাকা। উপযুক্ত দাম না পেলে তিনি মাছটি বিক্রি করবেন না।

পইল ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মঈনুল হক আরিফ জানান, মেলাটি পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে বসলেও সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে এটি মাছের মেলা নামে পরিচিতি পেয়েছে। প্রথমদিকে মেলাটি সনাতন ধর্মাবলম্বীরা আয়োজন করলেও যুগে যুগে এটি সার্বজনিন মেলায় রূপ নিয়েছে।

দুই শতাধিক বছর ধরে ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষ ঐক্যবদ্ধভাবে মেলাটি উদযাপন করে আসছেন। ভবিষ্যতেও মেলাটি ঐতিহ্য ধরে রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন আয়োজকসহ এলাকার মানুষ।






মন্তব্য চালু নেই