মেইন ম্যেনু

এক মাথা নিয়ে জন্মাল দুই বোন

ইন্দোনেশিয়ার এক হাসপাতালে একসঙ্গেই জন্মেছিল তিন বোন, গত ২১ জানুয়ারি। স্বাভাবিকভাবেই তাদের জন্ম দেন মা। কিন্তু জন্মের পর এদের দেখে অবাক হয়ে যান ডাক্তাররা। একজন আলাদা আর বাকি দু’জন একে অপরের সঙ্গে যুক্ত। শরীর দুটো আলাদা হলেও মাথা একটা, তাও আবার একটাই খুলি।

তবে খুশির খবর হচ্ছে, মাথা একটা হলেও দু’জনের ব্রেন আলাদা। তাই চিকিৎসকরা জানিয়েছেন শিশু দুটিকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আলাদা করে দিলে তারা স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারবে।

তাই বাবা-মা অস্ত্রোপচার করানোর জন্য ব্যকুল হয়ে পড়েছেন। কিন্তু শিশু দুটি সুস্থ থাকলেও ওদের ওজন খুবই কম। সঠিক ওজন না হলে অস্ত্রোপচার সম্ভব নয়। অন্তত ছয় থেকে আট মাস বয়স না হলে ওদের অস্ত্রোপচার করা যাবে না।

অস্ত্রোপচারেও রয়েছে বিপদের সম্ভাবনা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই ধরনের অস্ত্রোপচারে দু’জনকেই বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। আবার কখনো কখনো দুজনই মারা যায়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এই ধরনের যমজ খুব কম দেখা যায়, ২ লাখ শিশুর জন্মে এমন একটা ঘটনা ঘটে। আবার এই যমজ শিশুদের ৪০ থেকে ৬০ শতাংশ মৃত জন্মায়। যারা বেঁচে থাকে তাদের ৩৫ শতাংশ একদিনের বেশি বাঁচে না।

কিন্তু শিশু দুটির ক্ষেত্রে ব্রেন আলাদা হওয়ায় তারা এখনো সুস্থ। বাবা-মা তাদেরকে আলাদা করে সুস্থ জীবনে ফেরাতে দিন গুণছেন।






মন্তব্য চালু নেই