মেইন ম্যেনু

এক মাসে প্রণব মুখার্জির টেলিফোন খরচ ৫ লাখ রুপি!

ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনের এক মাসে টেলিফোন বিল আসে পাঁচ লাখ ছয় হাজার রুপি! সম্প্রতি তথ্য অধিকার আইনের (আরটিআই) বলে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ ভবনের বিভিন্ন খরচপাতির হিসাব জানতে চান মনসুর দরবেশ নামের এক ব্যক্তি।

রাষ্ট্রপতি ভবনের খরচ জানার আগেও মনসুর দরবেশ বিভিন্ন তথ্য জানার জন্য আবেদন জানিয়েছেন। কিছুদিন আগে ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিদেশ সফরে কতজন সঙ্গী ছিলেন এবং কত খরচ হয় –তা জানতে চেয়ে প্রথম খবরের শিরোনামে আসেন তিনি।

দেশটির রাষ্ট্রপতি ভবনের প্রেস সচিব গত রোববার দুপুরে ই-মেইলের মাধ্যমে মনসুর দরবেশের কিছু প্রশ্নের জবাব পাঠান।

মনসুর জানান, চলতি বছরের মে মাসে ভারতের রাষ্ট্রপতির টেলিফোন বিল এসেছে পাঁচ লাখ ছয় হাজার রুপি। এপ্রিল মাসেও এর পরিমাণ একই ছিল। আর মার্চ মাসে চার লাখ ২৫ হাজার রুপি খরচ আসে।

আর বিভিন্ন খাতে ২০১২-১৩ সালের জন্য ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনের ভাতা ছিল ৩০ কোটি ৯৬ লাখ রুপি। ২০১৪-১৫ সালে সেই ভাতা ৩৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়ায় ৪১ কোটি ৯৬ লাখ রুপি।

মোট ৭৫৪ জন কর্মী কাজ করেন রাষ্ট্রপতি ভবনে। এর মধ্যে রয়েছেন নয়জন প্রাইভেট সেক্রেটারি, ২৭ জন ড্রাইভার, ৬৪ জন সাফাইওয়ালা, আটজন টেলিফোন অপারেটর। গত মে মাসে এই কর্মীদের বেতন বাবদ খরচ হয় এক কোটি ৫২ লাখ রুপি।

মনসুর দরবেশ জানান, তাঁর আরো বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়নি। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল রাষ্ট্রপতি ভবনের ইলেকট্রিক বিল।

ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনের পেছনে বছরে প্রায় ১০০ কোটি রুপির ওপরে খরচ হয় বলে মনে করেন মনসুর দরবেশ।

এর আগে ভারতের রাষ্ট্রপতি থাকাকালীন বিদেশ সফরে রেকর্ড পরিমাণ খরচ করেছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল। বিদেশ সফরে তাঁর মোট খরচ ছিল ২০৫ কোটি রুপি। মোট ১২টি সফর করেছিলেন তিনি। গিয়েছিলেন ২২টি দেশে।

রাষ্ট্রপতি ভবন সম্পর্কে জানতে চাওয়া সব তথ্য-প্রশ্নের জবাব পাননি বলে জানিয়েছেন মনসুর দরবেশ।






মন্তব্য চালু নেই