মেইন ম্যেনু

এক মিনিটের দুই গোলে আর্জেন্টিনার মাথায় হাত

মেসি ছিলেন না। তবু আগুয়েরারা সাহস যুগিয়েছিলেন সমর্থকদের। কিন্তু কাজ হল না। ইকুয়েডর ঐতিহাসিক জয় তুলে নিল। দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে ‘ক্ষণিকের ভুলে’ এক মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল হজম করে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে হেরে গেল আর্জেন্টিনা।

এর আগে নেইমারহীন ব্রাজিলকেও দুই গোলে ডুবিয়েছে চিলি।

আর্জেন্টিনা এদিন গোল হজম করে ৮১ ও ৮২তম মিনিটে।

ইকুয়েডরের ইতিহাসে আর্জেন্টিনার মাটিতে এটাই তাদের প্রথম জয়।

এদিন প্রথমার্ধ শেষ হয় হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে। গোলশূন্য থেকে টানেলে যায় দুই দল। ৮১তম মিনিটে আকাশী-নীল জার্সিদের স্তব্ধ করে দেন সেন্টার ব্যাক ফ্রিকসন এরাজো। এক মিনিটের মধ্যেই ফিরতি আক্রমণ থেকে গোল করে জয় নিশ্চিত করেন ফিলিপ কাইসিডো।

ইকুয়েডরের প্রথম গোলটি আসে এরাজোর হেড থেকে। নিচু হেডে গোলরক্ষক রোমেরোকে পরাস্ত করেন এই ডিফেন্ডার। আর ভালেন্সিয়ার পাস থেকে বল পেয়ে খুব কাছ থেকে বল জালে জড়ান স্ট্রাইকার কাইসিডো। হারের জ্বালা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় মাসচেরানো বাহিনীকে।






মন্তব্য চালু নেই