মেইন ম্যেনু

এক ম্যাচ নিষিদ্ধ মরিনহো

সাউদাম্পটনের কাছে ৩-১ গোলে চেলসির হারের পর মাথা ঠিক ছিল না হোসে মরিনহোর। কথা-বার্তায়ও কোন সেন্সর ছিল না। বেফাঁস মন্তব্য করে ফেলেছিলেন। শেষ পর্যন্ত বেফাঁস মন্তব্যের জের অনেক দুর গড়াচ্ছে। ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনও (এফএ) বিষয়টা বেশ আমলে নিয়েছে। সুতরাং, নিষেধাজ্ঞার কবলেই পড়তে হলো স্বঘোষিত ‘দ্য স্পেশাল ওয়ান’কে।

অপরাধ নিজেও স্বীকার করে নিয়েছেন হোসে মরিনহো। যে কারণে, শাস্তির পরিমানটা একটু কমেছে। একটি ম্যাচে স্টেডিয়ামেই প্রবেশ করতে পারবেন না চেলসি ম্যানেজার। একই সঙ্গে আর্থিক জরিমানাও করা হলো। ৫০ হাজার পাউন্ড জরিমানা দিতে হবে তাকে। এফএ নির্ধারণ করে দিয়েছে এই শাস্তি।

সাউদাম্পটনের কাছে হারের পর চেলসির পক্ষে একটি পেনাল্টি দেয়া হয়নি বলে দাবি করেন মরিনহো। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘রেফারি চেলসির পক্ষে কোন সিদ্ধান্ত দিতেই যেন ভয় পান। খেলা যখন ১-১ এ চলছি, তখন বেশ কয়েকটা পেনাল্টি পেয়েছিলাম আমরা। সবচেয়ে বড় কথা নিশ্চিত একটি পেনাল্টি দেয়া হয়নি আমাদের। অথচ ওই সময় খেলার খুব গুরুত্বপূর্ণ সময় চলছিল।’

একই সময় মরিনহো বলেন, ‘আমার এই কথায় এফএ যদি আমাকে শাস্তিও দেয়, তবু দিক। তারা তো অন্য কোন কোচকে শাস্তি দিতে পারবে না। কারণ, তারা যে আমাকেই শাস্তি দেয়! এটা আমার জন্য কোন সমস্যা নয়।’

অপরাধ স্বীকার করে নেয়ায় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ) মরিনহোকে এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার শাস্তি দিয়ে সেটা একটু শিথিলই করে দিয়েছে। সতর্ক করে দিয়ে বলেছে যে, তিনি যদি এমন কোন অপরাধ আবারও করে থাকেন, তাহলেই তখন কার্যকর হবে এই শাস্তি।’






মন্তব্য চালু নেই